চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বিশ্বব্যাপী করোনার সংক্রমণ এবং মৃত্যু কিছুটা কমেছে

গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা কিছুটা কমেছে। আগের দিন মৃতের সংখ্যা সাত হাজারের নিচে নামলেও গত ২৪ ঘণ্টায় এই সংখ্যা ৬ হাজার, যা দৈনিক মৃত্যুর মধ্যে তিন মাসের বেশি সময়ের মধ্যে সর্বনিম্ন। একইসঙ্গে কমেছে নতুন শনাক্ত রোগীর সংখ্যাও, যা সাড়ে তিন মাসের মধ্যে একদিনে সর্বনিম্ন সংক্রমণ।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় বেশি মৃত্যু হয়েছে লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিলে। দৈনিক মৃত্যুতে দ্বিতীয় অবস্থানে আছে ভারত।

বিজ্ঞাপন

একদিনে সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৬ হাজার ৫৬ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় মৃত্যু কমেছে তিন শতাধিক। একই সময়ে করোনা শনাক্ত হয়েছে আরও ২ লাখ ৭৬ হাজার ৪১১ জনের দেহে।

ওয়ার্ল্ডোমিটারস থেকে মঙ্গলবার সকালে পাওয়া সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ৫ হাজার ৮১৬ জন, যা ৩ মাস ৮ দিনের মধ্যে সর্বনিম্ন। এর আগে গত ১৪ মার্চ ৬ হাজার ১৬৮ জনের মৃত্যু হয়েছিল। নতুন আক্রান্তদের নিয়ে বিশ্বজুড়ে করোনায় মৃতের সংখ্যা পৌঁছেছে ৩৮ লাখ ৮৮ হাজার ৩৫৭ জনে।

একই সময়ের মধ্যে ২ লাখ ৭৬ হাজার ৪১১ জন আক্রান্ত হয়েছে ভাইরাসটিতে। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় নতুন শনাক্ত রোগীর সংখ্যা কমেছে প্রায় ১৪ হাজার। ৩ মাস ১৪ দিনের মধ্যে একদিনে সবচেয়ে কম সংক্রমিত হয়েছে গত ২৪ ঘণ্টায়। এতে মহামারির শুরু থেকে ভাইরাসে আক্রান্ত মোট রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৭ কোটি ৯৫ লাখ ৩৪ হাজার ৫০০ জনে। এর আগে গত ৮ মার্চ সর্বনিম্ন ২ লাখ ৯৪ হাজার ৭১৫ জন সংক্রমিত হয়েছিলেন।

করোনাভাইরাসে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৩ কোটি ৪৪ লাখ ১৯ হাজার ৮৩৮ জন করোনায় আক্রান্ত এবং ৬ লাখ ১৭ হাজার ৪৬৩ জন মারা গেছেন।

লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় ও মৃত্যুর সংখ্যায় তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে ৮৯৯ জন। দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগী এক কোটি ৭৯ লাখ ৬৯ হাজার ৮০৬ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৫ লাখ ২ হাজার ৮১৭ জনের।

অন্যদিকে করোনায় আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশের প্রতিবেশী দেশ ভারত। তবে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যার তালিকায় দেশটির অবস্থান তৃতীয়। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে ৮৪৬ জন। দেশটিতে মোট আক্রান্ত দুই কোটি ৯৯ লাখ ৭৩ হাজার ৪৫৭ জন এবং মারা গেছেন ৩ লাখ ৮৯ হাজার ২৬৮ জন।

সারাবিশ্বে এই ভাইরাসে মোট আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে ১৭ কোটি ৯৫ লাখ ৪৮ হাজারের বেশি মানুষ আর প্রাণ হারিয়েছে ৩৮ লাখ ৮৮ হাজারের বেশি।

বিজ্ঞাপন