চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বিশ্বব্যাপী একদিনে করোনায় সর্বোচ্চ মৃত্যু ও শনাক্ত ভারতে

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত এনং মৃত্যুর সংখ্যার দিক দিয়ে ব্রাজিল, যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়াকে টপকে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু এবং শনাক্ত রোগী ভারতে। দেশটিতে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মারা গেছে ৮১০ জন এবং আক্রান্ত হয়েছে ৫০ হাজার ৬২৯ জন। বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, ভারত তৃতীয় অবস্থানে থাকলেও করোনায় মৃত্যুর ভয়াবহতা যে হারে বাড়ছে তা যুক্তরাষ্ট্র এবং ব্রাজিলকে ছাড়িয়ে যেতে পারে।

ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য অনুযায়ী, ২৪ ঘণ্টায় ভারতের পর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ মৃত্যু ব্রাজিলে ৫৭২ জন এবং শনাক্ত রোগী ১৮ হাজার। এর পরের অবস্থানে আছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে মৃত্যু ৫৬৮,আক্রান্ত ৪৮ হাজার ৬৮৮ জন।

বিজ্ঞাপন

হঠাৎ করে করোনায় মৃত্যু বেড়েছে কলম্বিয়াতে, দেশটিতে একদিনে মৃত্যু ৩৬৭, মেক্সিকো ২৭৪, ইরানে ২১৫, আর্জেন্টিনা ১৬৫, পেরু ১৯৭, সাউথ আফ্রিকা ১৭৩ জন।

বিশ্বব্যাপী করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছে ৪ হাজার ৩৭২ জন এবং শনাক্ত হয়েছে প্রায় ২ লাখ। গত ৮ মাসের হিসেব বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, আগস্ট মাসের প্রথম দিকে করোনার প্রকোপ সারাবিশ্বে কিছুটা কমতে শুরু করেছে। তবে দক্ষিণ এশিয়ার দেশ ভারতের করোনার পরিস্থিতি এখনও নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে না।

অন্য দেশের তুলনায় ভারতে আক্রান্ত এবং মৃত্যু সংখ্যা দুই বাড়ছে প্রতিনিয়ত। ভারতে মৃত্যুর হার ৩.০৭ শতাংশ।

বিজ্ঞাপন

যুক্তরাষ্ট্রে মৃত্যু হার ৬.১০ শতাংশ আর ব্রাজিলে ৪.৭২ শতাংশ। বিশ্ব জুড়ে করোনায় মৃতের হার ৫.৬৪ শতাংশ। করোনাভাইরাসের মহামারিতে বর্তমানে শীর্ষ আক্রান্ত তিন দেশ হলো যুক্তরাষ্ট্র, ব্রাজিল ও ভারত।

গত সপ্তাহ জুড়ে ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা আশঙ্কাজনকভাবে বেড়েছে। দেশটির সরকার ধারাবাহিকভাবে লকডাউনের বিধিনিষেধ শিথিলের সঙ্গে সঙ্গে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা।

ভারতের মধ্যে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত রাজ্য মহারাষ্ট্র। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ তামিল নাড়ুতে, আর তৃতীয় সর্বোচ্চ রাজধানী দিল্লীতে।

করোনাভাইরাসে এ পর্যন্ত আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে বিশ্বের এক কোটি ৮৪ লাখ ৪৩ হাজার ৪৪৮ জন। তাদের মধ্যে বর্তমানে ৬০ লাখ ৭২ হাজার ৭১৭ জন চিকিৎসাধীন এবং ৬৪ হাজার ৭৩২ জন আশঙ্কাজনক অবস্থায় রয়েছে।

এ ছাড়া করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে এখন পর্যন্ত এক কোটি ১৬ লাখ ৬৫ হাজার ৮৯২ জন সুস্থ হয়ে উঠেছে।