চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বিশ্বকাপ দল ঘোষণার তাগিদ বিসিবি সভাপতির

নির্বাচকদের সঙ্গে বিসিবি সভাপতির দীর্ঘ সভার দৃশ্যই স্পষ্ট করে বিশ্বকাপ দল চূড়ান্ত করতেই তাদের একত্রিত হওয়া। দুপুর গড়িয়ে বিকেলে নাজমুল হাসান পাপন বিসিবি কার্যালয়ে ছেড়ে যাওয়ার সময় জানিয়ে গেলেন, বিশ্বকাপের ১৫ সদস্যের দল দ্রুত ঘোষণা করার তাগিদ দিয়েছেন নির্বাচকদের।

বিসিবি সভাপতির ভাষ্যমতে, মঙ্গল অথবা বুধবার ঘোষণা করা হবে বিশ্বকাপ স্কোয়াড ও আয়ারল্যান্ডে হতে যাওয়া ত্রিদেশীয় সিরিজের দল।

‘আমার মনে হয় টিম (বিশ্বকাপ দল) কালকে বা পরশু দিয়ে দেবে। আজ আমি এটাই জানতে এসেছিলাম, দল ঘোষণা করবে কবে। আমার প্রাথমিক একটা ধারণা ছিল যে, ১৮ তারিখের মধ্যে টিম ঘোষণা করে দিতে হবে এবং সেটা সহজে পরিবর্তন করা যাবে না যদি কোনো ইনজুরি সমস্যা না থাকে। আমরা এখন জানতে পেরেছি যে সময় আছে। ২২ মে পর্যন্ত সময় আছে, আমরা পরিববর্তন করতে পারব কাউকে না বলেই। বিশ্বকাপের আগে আমাদের ত্রিদেশীয় সিরিজ আছে, ওটা ১৮ তারিখ শেষ হয়ে যাচ্ছে, আমাদের তো একটা সময় আছেই। তাই আমি নির্বাচকদের বলেছি স্কোয়াড দিয়ে দিতে।’

বিশ্বকাপের দল ঘোষণা হয়ে গেলেও সেখানে পরিবর্তন আনতে পারে বিসিবি ত্রিদেশীয় সিরিজের পারফরম্যান্স বিবেচনায় এনে- এমন ইঙ্গিত দিয়ে রাখলেন নাজমুল হাসান। জাতীয় দলের কয়েকজনের ইনজুরি ও অফফর্ম ভাবাচ্ছে বিসিবি বসকে।

‘কয়েকটা কারণে সমস্যা হচ্ছে। একটা হচ্ছে, যাদেরকে নিয়ে চিন্তা-ভাবনা করছে, তাদের ফর্ম ভালো হচ্ছে না। এটা একটা ইস্যু হয়ে দাঁড়িয়েছে, ইনজুরিও একটা বড় ইস্যু হয়ে দাঁড়িয়েছে। অনেক খেলোয়াড়কেই আমরা ধরেছিলাম বিশ্বকাপ স্কোয়াডে থাকবে। কিন্তু এখনো তারা পুরোপুরি সুস্থ না। এই জিনিসগুলো বিবেচনায় নেয়ার জন্যই একটু সমস্যা হচ্ছিল, ১৫ জনের স্কোয়াডটা এখনই ঘোষণা করা। যেহেতু আমাদের সময় আছে, আমি বলতে এসেছিলাম যে, তোমরা স্কোয়াড দিয়ে দাও ১৫ জনের। যেহেতু মে’র ১২ তারিখ পর্যন্ত পরিবর্তনের সময় আছে।’

‘এর মধ্যে যদি কারো ইনজুরি থাকে, সে যদি ভালো পারফর্ম করে, তার আসার একটা সুযোগ আছে বা এখানে ভালো খেলছে না, কিন্তু ট্রাই নেশনে ভালো খেলছে, তাহলে ওদেরকে আমরা নতুনভাবে সুযোগ দিয়ে দেখতে পারি। আমাদের একটা সুযোগ আছে, অপশন ;আছে এটা পরিবর্তন করার। এটা বলার জন্যই এসেছি। টিমটা দেরি না করে দিয়ে দাও।’

সাকিব-মিরাজ ছাড়াও ত্রিদেশীয় সিরিজের জন্য আরও একজন স্পিনার দলে নেয়ার কথা ভাবা হচ্ছে বলেও জানান নাজমুল হাসান, ‘স্পিন বিভাগটা আমরা দেখছি। ত্রিদেশীয় সিরিজে আরও একজন স্পিনারকে ট্রাই করার চিন্তা করছি। স্পিনারটি কে সেটি এখনই নিশ্চিত করে বলতে পারছি না।’