চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক ম্যাক্সওয়েল!

অস্ট্রেলিয়া দলের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার হিসেবে ধরা হচ্ছিল গ্লেন ম্যাক্সওয়েলকে। শুরুতে ভালো করলেও এখন নিজেকে হারিয়ে খুঁজেছেন তিনি। একবার দল থেকে বেশ লম্বা সময়ের জন্য বাদ পড়েছিলেন।

কিন্তু বিগ ব্যাশে মেলবোর্ন স্টার্সের অধিনায়কে ফিনিশার হিসেবে সাতনম্বর পজিসনে দলে নেন কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার। তবে সবশেষ ভারতের বিপক্ষে হারা ওয়ানডে সিরিজে সেভাবে নিজেকে মেলে ধরতে পারেননি ম্যাক্স।

বিজ্ঞাপন

ম্যাক্সওয়েলকে আগামী বিশ্বকাপের দলে রাখা হবে কিনা তা এখনো নিশ্চিত নয়। তবে তার সাবেক সতীর্থ মিচেল জনসন বলছেন, বিশ্বকাপ দলে তার বাজির ঘোড়া ম্যাক্সওয়েলই। সেটা শুধু দলের সদস্য হিসেবে নয়, ২০১৫ চ্যাম্পিয়নদের শিরোপা ধরে রাখার মিশনে জনসনের অধিনায়কও ম্যাক্স।

বিজ্ঞাপন

‘পার্থ নাউ’ পত্রিকায় লেখা নিজের কলামে জনসন বলেছেন, ‘অধিনায়ক হিসেবে ম্যাক্সওয়েলকে বেছে নেয়ায় আমার সিদ্ধান্তে অনেকেই হয়তো ভুরু কুঁচকাবে। কিন্তু অস্ট্রেলিয়া দল এবং আইপিএলে তার সঙ্গে একই দলে খেলার কারণে বলতে পারি, ধ্রুপদী এই ক্রিকেটারকে নিয়ে ভুল বোঝাবুঝি হচ্ছে।’

তার আরও মন্তব্য, ‘আপনাদের বিবেচনায় সে হয়তো প্রথম পছন্দ বা আদর্শ অধিনায়ক হবে না। যদিও মেলবোর্ন স্টার্স তাকে ঠিকভাবেই দেখেছে। এই অধিনায়কত্বই তাকে পরিপক্ব করে গড়ে তুলেছে। আমি মনে করি, স্পোর্টসম্যান হওয়া উচিত নিঃসন্দেহে আত্মবিশ্বাসী। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হল, ম্যাক্সওয়েল ক্রিকেটের ট্রাজিক, যিনি এই খেলাটিকে ভালবাসেন এবং গভীরভাবে এটি সম্পর্কে চিন্তা করেন।’

বল টেম্পারিংয়ের দায়ে এক বছর নিষিদ্ধ থাকা দুই ক্রিকেটার সাবেক অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নারকেও নিজের দলে রেখেছেন বিশ্বকাপজয়ী এই পেসার। ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে ১ জুন অস্ট্রেলিয়ার প্রথম প্রতিপক্ষ আফগানিস্তান।

জনসনের গড়া অস্ট্রেলিয়ার বিশ্বকাপ দল: গ্লেন ম্যাক্সওয়েল (অধি.), উসমান খাজা (সহ-অধি.), অ্যারন ফিঞ্চ, স্টিভেন স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার, ডি’আরসি শর্ট, শন মার্শ, মার্কাস স্টোইনিস, পিটার হ্যান্ডসকম্ব, প্যাট কামিন্স, নাথান কোল্টার-নাইল, মিচেল স্টার্ক, জাই রিচার্ডসন, আন্দ্রে টাই এবং অ্যাডাম জাম্পা।

Bellow Post-Green View