চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বিরল সম্মানের অধিকারী রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা

গান্ধীর জন্মদিনে তার প্রিয় ভজন সংগীত পরিবেশনের ডাক পেলেন বাংলাদেশের রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা

উপমহাদেশের বরেণ‍্য রবীন্দ্র সংগীতশিল্পী রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা। সংগীতে ভারত-বাংলাদেশে সমানভাবে সমাদৃত তিনি। এবার আরেক বিরল সম্মানের অধিকারী হচ্ছেন জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বহু সম্মাননায় ভূষিত এই গুণী।

এবার রবীন্দ্র সংগীত দিয়ে নয়, ভারত সরকারের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তারা এবার মহাত্মা গান্ধীর প্রিয় একটি ভজন ভারতবাসীকে উপহার দিতে যাচ্ছেন।

এমনটা জানা গেছে ভারতীয় হাইকমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রীংলার একটি চিঠি থেকে।

বিজ্ঞাপন

২ অক্টোবর মহাত্মা গান্ধীর জন্মদিন। প্রতি বছর এই দিনটি ভারতে জাতীয় ছুটি এবং গান্ধীজয়ন্তী হিসেবে পালন করা হয়। আর এই দিনে খ্যাতিমান একজন শিল্পীর কণ্ঠে ধারণ করে প্রচার করা হয় গান্ধীর প্রিয় ভজন সংগীত। এর আগে লতা মঙ্গেশকর, আশা ভোঁসলে থেকে শুরু করে ভারতীয় খ্যাতিমান সংগীত শিল্পীরা গান্ধীর প্রিয় ভজনটি তাদের কণ্ঠে ধারণ করেছেন। কিন্তু এবার ডাক পেয়েছেন বাংলাদেশের রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা।

গুজরাটি ভাষায় লেখা গান্ধীর প্রিয় ভজন ‘বৈষ্ণবো জান তো’। ছয়শ’ বছরের বেশি পুরনো এই গানে মানুষের দুঃখ-দুর্দশা অনুভব করার কথা এবং শ্রেণিহীন সমাজের কথা উঠে এসেছে। আর এই ভজন সংগীতটি গুজরাটি ভাষায় গাওয়ার মর্যাদা অর্জন করলেন রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা।

তাকে পাঠানো ধন্যবাদ পত্রে শ্রীংলা লিখেন, গান্ধীর প্রিয় ভজন সংগীতটি আমাদের অন্তরের। নিজের ভাষা না হওয়ার পর‌ও যে অসাধারণ ভাবে আপনি ভজন সংগীতটি করেছেন তা রীতিমত বিস্ময়কর। আপনার এই শৈল্পিক অগ্রযাত্রায় আপনার মিউজিশিয়ান, টেকনিশিয়ানসহ আপনার পুরো টিমের প্রতি কৃতজ্ঞতা।

এরআগে ভারতে রবীন্দ্র সংগীতের গুরুত্বপূর্ণ আসরগুলোতে সংগীত পরিবেশন করে সেখানকার মানুষের মন জয় করেছেন রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা। তার গায়কীর প্রশংসা করেছেন সেখানকার বিশিষ্ট সংগীতজ্ঞরাও।

বিজ্ঞাপন