চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বিবিসির ১০০ অনুপ্রেরণাদায়ী নারীর তালিকায় ২ বাংলাদেশি

২০২০ সালে সারাবিশ্বে সবচেয়ে শক্তিশালী ও অনুপ্রেরণাদায়ী ১০০ নারীর তালিকা প্রকাশ করেছে বিবিসি। সেই তালিকায় আছেন দুজন বাংলাদেশি নারীও।

বিবিসি বাংলা জানিয়েছে, এবছরের একশ নারীর তালিকায় যারা পরিবর্তন আনতে নেতৃত্ব দিয়েছেন এবং মহামারির এই কঠিন সময়েও তাদের কাজের মাধ্যমে নিজেদের আলাদা করতে সক্ষম হয়েছেন তাদের তুলে ধরা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

এই তালিকায় আছেন ফিনল্যান্ডের সম্পূর্ণ নারী সদস্য নিয়ে গঠিত কোয়ালিশন সরকারের প্রধান স্যান্না ম্যারিন এবং অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের করোনাভাইরাস ভ্যাকসিন গবেষণা দলের প্রধান সারা গিলবার্ট।

তালিকায় স্থান করে নিয়েছেন বাংলাদেশের রিনা আক্তার ও রিমা সুলতানা রিমু।

বিবিসি বাংলা জানিয়েছে, রিনা আক্তারকে মাত্র আট বছর বয়সে এক আত্মীয় পতিতালয়ে বিক্রি করে দেয়। সেখানেই বেড়ে ওঠা রিনা পরে যৌনকর্মে যুক্ত হন। তিনিই অন্য যৌনকর্মীদের জীবনমানের উন্নয়নে কাজ করছেন। করোনাভাইরাস মহামারির সময়ে রিনা ও তার টিম ঢাকায় প্রতি সপ্তাহে অর্থনৈতিক দুরবস্থায় পড়া অন্তত চারশো যৌনকর্মীকে খাবার সরবরাহ করেছেন।

বিজ্ঞাপন

রিনা আক্তার বলেন, মানুষ আমাদের পেশাকে ছোটো করে দেখে কিন্তু আমরা একাজ করি খাবার কেনার জন্য। আমি চেষ্টা করছি যাতে এই পেশার কেউ না খেয়ে থাকে এবং তাদের সন্তানদের যেন এ কাজ করতে না হয়।

১০০ অনুপ্রেরণাদায়ী নারীর তালিকায় থাকা আরেক বাংলাদেশি রিমা সুলতানা রিমু একজন শিক্ষক। তিনি কক্সবাজার ভিত্তিক ইয়াং উইমেন লিডার্স ফর পিস-এর একজন সদস্য।

রোহিঙ্গা শরণার্থী পরিস্থিতি মোকাবেলায় কাজ করছেন রিমা। বিশেষ করে রোহিঙ্গা নারী ও শিশুদের যাদের শিক্ষার সুযোগ নেই তাদের জন্য লিঙ্গ সংবেদনশীল ও বয়সভিত্তিক স্বাক্ষরতা কার্যক্রম পরিচালনা করেছেন তিনি।

তিনি বলেন, আমি বাংলাদেশে লিঙ্গ সমতা আনতে অঙ্গীকারাবদ্ধ। অধিকার আদায়ের জন্য নারীর শক্তিতে বিশ্বাস করি আমি।

পাকিস্তানী অভিনেত্রী মাহিরা খান ও পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর দারিদ্র বিমোচন বিষয়ক বিশেষ সহকারী সানিয়া নিশতার, ভারতের নাগরিকত্ব আইনবিরোধী আন্দোলনে অংশ ৮২ বছর বয়সী বিলকিস বানুসহ আরও অনেকে রয়েছেন এই তালিকায়।

বিজ্ঞাপন