চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বিপদে কাছের মানুষদের পাশে পাননি ব্রিটনি

ব্যক্তিগত জীবনে ভালো নেই পপ তারকা ব্রিটনি স্পিয়ার্স। কঠিন এই সময়ে কাছের মানুষদের পাশে পাননি গায়িকা। শুক্রবার ইনস্টাগ্রামে এমনটাই জানিয়েছেন তিনি।

ইনস্টাগ্রামে ব্রিটনি লিখেছেন, ‘সবচেয়ে কাছের মানুষেরা যখন কঠিন সময়ে পাশে থাকতে ব্যর্থ হয়, এর চাইতে খারাপ আর কিছুই হতে পারে না। ন্যায়ের পথে চলেও তাদের পাশে না পাওয়ার চেয়ে খারাপ আর কী হতে পারে!’

পোস্টে ব্রিটনি আরও লিখেছেন, ‘যাদের সবচেয়ে ভালোবেসেছি, তারা কি বিপদ থেকে আমাকে টেনে তোলার জন্য হাত বাড়িয়েছে?! এখন আমাকে নিয়ে ভাবেন এটা বলার প্রয়োজন কী? যখন ডুবে যাচ্ছিলাম তখন কি হাত বাড়িয়েছিলেন?’

বিজ্ঞাপন

কাছের মানুষদের আচরণে কষ্ট পেয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করলেও কাদের ওপর তিনি অসন্তুষ্ট তা জানাননি। তবে এটা বলে দিয়েছেন, যারা প্রয়োজনের সময় মুখ ফিরিয়ে নিয়েছেন, তাদেরকে তিনি মনে রাখবেন।

গত সপ্তাহে ব্রিটনি স্পিয়ার্স তার বাবার বিরুদ্ধে তাকে বন্দি করে রাখার অভিযোগ করেছেন আদালতে। ৩৯ বছর বয়সী এই তারকা জানিয়েছেন, বন্দিদশা থেকে মুক্তি পেতে চান তিনি।

১৩ বছর ধরে ব্রিটনির ব্যক্তিগত ও আর্থিক সব বিষয় নিয়ন্ত্রণ করছেন তার বাবা জিমি স্পিয়ার্স। যুক্তরাষ্ট্রের কনজারভেটরশিপ আইনের অধীনে এই ক্ষমতা দেওয়া হয় জিমিকে। হলিউড রিপোর্টার

বিজ্ঞাপন