চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বিনোদন দেয়াই ‘হিট’র উদ্দেশ্য, বার্তা বা শিক্ষার কিছু নেই: রাজ

জোর গলায় বলছি, শিক্ষামূলক কিছু বানালে দর্শক দেখেনা। যদি দেখতো তাহলে ওগুলোই বানাতাম...

বছর জুড়ে দর্শক জনপ্রিয়তার শীর্ষে থাকা সিরিয়াল ‘ফ্যামিলি ক্রাইসিস’ আগামী ফেব্রুয়ারির পরে শেষ হতে পারে। তার আগেই নতুন সিরিয়াল ‘হিট’ নিয়ে আসছেন মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ। পহেলা জানুয়ারি থেকে নাটকটি প্রচার হবে একটি বেসরকারি টিভিতে এবং সিনেমাওয়ালার ইউটিউবে। ইতোমধ্যে ‘হিট’র অনেকগুলো পর্বের শুটিং সম্পন্ন হয়েছে বলে জানালেন মাইক, গ্রাজুয়েট বানিয়ে পরিচিতি পাওয়া নির্মাতা রাজ।

‘হিট’ সিরিয়ালের কনসেপ্ট মারুফ রেহমানের। দ্বিতীয় লট থেকে যৌথভাবে চিত্রনাট্য করছেন মারুফ রেহমান ও মোস্তফা কামাল রাজ। এর টাইটেল গান লিখেছেন জনি হক। বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করছেন সাজু খাদেম, আশনা হাবিব ভাবনা, হাসান মাসুদ, ইশতিয়াক আহমেদ রুমেল, মনিরা মিঠু, সারিকা সাবা, সৌমি, সুমাইয়া আঞ্জুম মিথিলা, নীলাঞ্জনা নীল, রাজু, অনিক, হারুন অর রশিদ, মুকিত জাকারিয়া, আনোয়ার হোসেন, নাজমুল। নির্মাতার ভাষায়, আরও প্রচুর চরিত্র থাকছে এখানে।

বিজ্ঞাপন

‘হিট’ সিরিয়াল প্রসঙ্গে বুধবার বিকেলে মোস্তফা কামাল রাজ কথা বলেন চ্যানেল আই অনলাইনের সঙ্গে। বলেন, সিরিয়ালে যা যা থাকার দরকার ‘হিট’-এ সবই থাকবে। সবাই নতুন কিছু আছে বলে উল্লেখ করলেও আমি তা বলতে চাই না। তবে ‘হিট’ নাম কেন দিয়েছি দর্শক দেখলে বুঝতে পারবেন। বাংলাদেশে যত ধরণের লোকজন বেশি চোখে পড়ে প্রায় সবই তুলে ধরেছি।

রাজ বলেন, মানুষ কোনো না কোনোভাবে হিট হতে চায়। সেটা ফেসবুক বা ইনস্টাগ্রামে ছবি দিয়ে হোক, নিজের বাড়িতে কিংবা অফিসে, মহল্লা বা রাজনীতির মাঠে; যে কোনোভাবে প্রত্যেকেই নিজ অবস্থানে নিজেকে হিট বানাতে চায়। হিট হওয়ার জন্য নেগেটিভ বা পজিটিভ দিক চিন্তা করে না। নিজেকে জনপ্রিয় করার জন্য একেক জন মানুষ একেক ভাবে যেসব পথ অবলম্বন করে তাই উঠে আসবে হিটে।

তবে ‘হিট’ সিরিয়ালটিকে ‘ফ্যামিলি ক্রাইসিস’র সঙ্গে মোটেও তুলনা করতে চাইলেন না মোস্তফা কামাল রাজ। তিনি বলেন, ‘ফ্যামিলি ক্রাইসিস’ বানানোর আগে জানতাম না যে নাটকটি এতো জনপ্রিয় হবে। মনে করেছিলাম, মানুষ পছন্দ করবে। মনে করবে এটা তাদের পরিচিত গল্প। এই ধারণা নিয়েই শুট শুরু করেছিলাম। ধীরে ধীরে জনপ্রিয়তা অর্জন করেন ‘ফ্যামিলি ক্রাইসিস’। তবে মনে রাখতে হবে পছন্দ করা আর জনপ্রিয় হওয়া কিন্তু এক জিনিস না।

হিট প্রসঙ্গে রাজ আরও বলেন, মানুষ যতো দেখবে ততই তাদের ভালো লাগবে। এক পর্ব মিস করলে অন্য পর্ব দেখতে ঝামেলা হবে না। বিনোদন দেয়ার জন্য হিট বানাচ্ছি, বার্তা বা শিক্ষামূলক কিছু নেই। তবে নাটক-সিনেমা যে মানুষের জীবনের সঙ্গে জড়িত এটা মানেন নির্মাতা রাজ। তিনি বলেন, আমরা বলি স্কুল কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় থাকতেও কেন নাটক সিনেমা থেকে শিখতে হবে। কিন্তু এগুলো কোনো না কোনো ভাবে মানুষের জীবনের প্রভাব ফেলে।

‘তরুণরা শাহরুখ খান, টম ক্রুজ যা পরেন তাই ফলো করে। নায়িকাদের ফলো করে তরুণীরা পোশাক, মেকআপ নেয়। বড় বড় সেলেব্রেটিরা যদি খারাপ সংলাপ বা অন্য কিছু করে তাহলে সেটার প্রভাব সমাজে পড়ে। তাই এখানে শিক্ষামূলক বা কোনো মেসেজ রাখা হয়। তবে আমার ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা থেকে জোর গলায় বলছি, বাংলাদেশে শিক্ষামূলক কিছু বানালে দর্শক দেখেনা। যদি দর্শক দেখতো তাহলে ওগুলোই বানাতাম। দেখেনা বলেই দর্শক যা দেখতে চায় তাই বানাচ্ছি।’

রাজ বলেন, মানসিক শান্তি বা ব্যক্তিগত ভালো লাগার থেকে কিছু বানাই। সেটা মানুষ দেখুক বা না দেখুক ব্যাপার না। অবশ্যই সেটা নিয়মিত নয়। নির্মাণ করা আমার পেশা। এটা করে যদি উপার্জন না করতে পারি তাহলে কেন করবো? টিকে থাকার জন্য ম্যাস কনটেন্ট বানাতে চাই, যা মানুষকে বিনোদন দেবে। অনেকের ভালো লাগবে অনেকের লাগবে না। সবার পছন্দমতো কাজ সম্ভব না। তবে হিট নিয়ে এতোটুকু গ্যারান্টি দিতে পারি, যতসময় এ নাটক দর্শক দেখবে ততসময় দর্শকদের এটি ভালো লাগবে।