চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বিনা দোষে জেল, প্রতিকার কী?

সম্প্রতি একটি ঘটনা দেশবাসীর নিকট গণমাধ্যমের কল্যাণে প্রকাশিত হয়েছে। বিনা দোষে একজন মানুষকে প্রায় তিন বছর জেল খাটতে হয়েছে। নামের ভুলে কারণে না অন্য কোনো কূটচালে এই ঘটনা ঘটলো, তা তদন্ত করা প্রয়োজন বলে আমরা মনেকরি ।

সোনালী ব্যাংকের প্রায় সাড়ে ১৮ কোটি টাকা জালিয়াতির অভিযোগে আবু সালেকের বিরুদ্ধে ৩৩টি মামলা হয়। এর মধ্যে ২৬টিতে জাহালমকে আসামি আবু সালেক হিসেবে চিহ্নিত করে অভিযোগপত্র দেয় দুদক। চিঠি পাওয়ার পর দুদক কার্যালয়ে হাজির হয়ে পাঁচ বছর আগে জাহালম বলেছিলেন, তিনি সালেক নন। বাংলায় লিখতে পারলেও ইংরেজিতে লিখতে জানেন না। কিন্তু নিরীহ পাটকলশ্রমিক জাহালমের কথা সেদিন দুদকের কেউ বিশ্বাস করেননি। এরপর ২০১৬ সালের ৬ ফেব্রুয়ারি দুদকের এসব মামলায় জাহালম গ্রেপ্তার হন।

১ হাজার ৯২ দিন পর গত রোববার মুক্তি পেয়েছেন জাহালম। জেল থেকে বের হয়ে কাশিমপুর কারাফটকে সাংবাদিকদের জাহালম বলেন: কখনো বিশ্বাস করতে পারিনি ছাড়া পাব। বিনা দোষে জেল খাটতে হলো। এর জন্য দায়ী ব্যক্তিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও ক্ষতিপূরণ দাবি করেন জাহালম। সে সময় হাইকোর্টকে ধন্যবাদ জানান জাহালম। আজ এ বিষয়ে আইনমন্ত্রী মন্তব্য করেছেন।

বিনা অপরাধে জাহালমের কারাভোগ করাকে নিন্দনীয় ও দুঃখজনক বলে মন্তব্য করেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। আইনমন্ত্রী বলেন, জাহালমের ঘটনাটি এখন দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) তদন্ত করছে। তদন্ত সাপেক্ষে এ ঘটনায় দোষী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তিনি আরও বলেন: আমরা জাতিসংঘের মানবাধিকারবিষয়ক উপদেষ্টাকে জানিয়েছি, দেশে মানবাধিকার লঙ্ঘনবিষয়ক কোনো ঘটনা ঘটলে তা দ্রুত সমাধান করা হয়। প্রতিটি ঘটনায় তাৎক্ষণিক সিদ্ধান্ত নিই। আমরা জানিয়েছি, দেশে মানবাধিকার পরিস্থিতির উন্নতি হয়েছে। কেউ মানবাধিকার লঙ্ঘন করলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তারা বাংলাদেশের সাক্ষ্য আইন ও বৈষম্য নিরোধ আইন সম্পর্কে কিছু পর্যবেক্ষণ দিয়েছেন। আমরা সেগুলো নিয়ে কাজ করব।

বাংলাদেশের বিচার ব্যবস্থা নিয়ে মানুষের আস্থা থাকলেও সম্প্রতি কিছু ঘটনা মানুষের মনে ভিন্ন প্রশ্ন উদয় ঘটেছে। একজন নিরাপরাধ ব্যক্তিকে কেনো বিনাদোষে এতদিন কারাবাস করতে হলো, এই বিষয়ে সুষ্ঠু তদন্ত হওয়া প্রয়োজন ও এর প্রতিকার নিয়ে ভাবাও জরুরি। আমরা মনেকরি আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করতে হলে এ ধরণের ঘটনার পুনরাবৃত্তি রোধ করা দরকার।