চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বিদেশে অবস্থান করেই আগাম জামিন চেয়েছেন সিকদার গ্রুপের দুই ভাই

এক্সিম ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ দুজনকে হত্যাচেষ্টার অভিযোগে করা মামলায় হাইকোর্টে আগাম জামিন চেয়েছেন সিকদার গ্রুপের এমডি রন হক সিকদার ও তার ভাই দিপু হক সিকদার।

বর্তমানে বিদেশে অবস্থান করেই তারা এই জামিন চেয়েছেন বলে জানা গেছে। তবে করোনাভাইরাস সংক্রমণের প্রেক্ষাপটে দেশে ভার্চুয়াল আদালতের কার্যক্রম শুরুর পর গত তিন মাসে হাইকোর্টে কোন আগাম জামিন আবেদন কিংবা মঞ্জুর হতে দেখা যায়নি।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

রোববার রাতে সুপ্রিম কোর্টের ওয়েবসাইটে দেখা যায়, ‘রন হক শিকদার অ্যান্ড এনাদার বনাম রাষ্ট্র’ শিরোনামে জামিন আবেদনটি বিচারপতি মো. আশরাফুল কামালের ভার্চুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চের সোমবারের কার্যতালিকায় এক নম্বর ক্রমিকে রয়েছে। আর জামিন আবেদনের পক্ষে আইনজীবী হিসেবে রয়েছেন আজমালুল হোসেন কিউসি, সাঈদ আহমেদ ও মুহাম্মদ সাইফুল্লাহ মামুনের নাম।

এই জামিন আবেদনের বিষয়ে সংশ্লিষ্ট হাইকোর্ট বেঞ্চের ডেপুটি অ্যার্টনি জেনারেল বশির আহমেদ চ্যানেল আই অনলাইনকে বলেন, এক্সিম ব্যাংকের এমডি ও অতিরিক্ত এমডিকে আটক ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগে করা মামলায় রন হক সিকদার ও দিপু হক সিকদারের আগাম জামিনের আবেদনটি সোমবারের কার্যতালিকায় এসেছে। তবে ভার্চুয়াল কোর্টের কার্যক্রম শুরুর পর গত তিন মাসে হাইকোর্টে আগাম জামিনের কোনো বিষয় আমি দেখিনি। আর আবেদনকারীরা বর্তমানে দেশের বাইরে অবস্থান করছেন। আইনের দৃষ্টিতে দেশের বাইরে থেকে আগাম জামিন চাওয়ার সুযোগ নেই।’

এক্সিম ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ (এমডি) দুজনকে হত্যাচেষ্টার অভিযোগে গত ১৯ মে এক্সিম ব্যাংক কর্তৃপক্ষ গুলশান থানায় রন হক সিকদার ও তার ভাই দিপু হক সিকদারের বিরুদ্ধে মামলা হয়। মামলার ঘটনার পরে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে দুই ভাই বিদেশে চলে যান বলে গণমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয়।