চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বিদেশী কোচের অভাব, দেশীদের নিয়েও বিপাকে পাকিস্তান

মিকি আর্থারের শূন্যস্থান পূরণ হবে কাকে দিয়ে এ প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে গিয়ে দিশেহারা হওয়ার দশা পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি)। পছন্দমতো বিদেশী কোচ খুঁজে পাচ্ছে না বোর্ডটি। আবার দেশী কাউকে পছন্দ হলেই তাতে ‘ভেটো’ দিচ্ছেন সাবেক ক্রিকেটাররা!

২৬ আগস্টের মধ্যে আবেদনের শর্ত দিয়ে কোচের খোঁজে নেমেছে পিসিবি। এরইমধ্যে অনেক আবেদন জমা পড়লেও বড় মানের কোচরা তেমন আগ্রহ দেখাচ্ছেন না পাকিস্তানের আসতে। পিসিবির পছন্দের তালিকায় নিউজিল্যান্ডের সাবেক কোচ মাইক হেসন, ইসলামাবাদ ইউনাইটেডের কোচ ডিন জোন্সের নাম থাকলেও দুজনের কাছ থেকে খুব একটা সাড়া পাচ্ছে না বোর্ডটি।

বিজ্ঞাপন

পিসিবির একজন কর্মকর্তা এক্সপ্রেস ট্রিবিউনকে জানিয়েছেন, মূলত বোর্ডের প্রস্তাবিত বেতন-ভাতা কাঠামো পছন্দ হয়নি নামীদামী কোচদের। এরসঙ্গে আবার জড়িয়ে আছে নিরাপত্তার বিষয়টিও। দুইদিক বিবেচনা করে সকলে নিজেদের দূরে রাখছেন পাকিস্তানের কোচ হওয়ার ইচ্ছা থেকে।

বিদেশীদের না পেলে দেশীদের মাঝ থেকেই একজনকে কোচ হিসেবে বেছে নিতে চায় পিসিবি। কিন্তু এ নিয়েও তৈরি হয়েছে সমস্যা। এরইমধ্যে দেশী-বিদেশী প্রসঙ্গে দুভাগে ভাগ হয়ে গেছেন পিসিবির কর্মকর্তারা। একদল চান অভিজ্ঞ বিদেশী কোচ। আরেক দলের ভাবনা পাকিস্তান দল চালানোর মতো সক্ষম কোচ দেশেই আছে।

বিজ্ঞাপন

স্থানীয় কোচদের মধ্যে মিসবাহ-উল-হক, রশিদ লতিফ ও নাদিম খান এগিয়ে আছেন। এই তিনজনের একজনেরও জাতীয় দল চালানোর পূর্ব অভিজ্ঞতা নেই। সাবেক অধিনায়ক মিসবাহর সম্ভাবনাই বেশি। এরই মাঝে কন্ডিশনিং ক্যাম্পের দায়িত্বও দেয়া হয়েছে তাকে। কিন্তু তার সক্ষমতা নিয়েও তৈরি হয়েছে কানাঘুষা।

খেলোয়াড়ি জীবনে বেশ ধীর-স্থির প্রকৃতির ছিলেন মিসবাহ। এই স্বভাবটাই যাচ্ছে তার বিপক্ষে। দেশটির সাবেক ক্রিকেটার ও ধারাভাষ্যকার রমিজ রাজার প্রশ্ন যিনি ‘রক্ষণাত্মক’ খেলে গেছেন সারা জীবন তিনি তরুণদের আক্রমণাত্মক খেলার জন্য অনুপ্রাণিত করবেন কীভাবে?

‘অধিনায়কত্ব পেয়েই বিরাট কোহলি তার আগ্রাসী আর আক্রমণাত্মক চেহারা দিয়ে ভারত দলটার চেহারাই পাল্টে দিয়েছে। এমন মানসিকতার কোচ এখন পাকিস্তানের দরকার যিনি তরুণদের রক্তে আক্রমণের বীজ বুনে দিতে পারবেন। আধুনিক ক্রিকেট কী চায় সেটা বুঝে পরিকল্পনা তৈরি করতে পারবেন। ’

‘খেলোয়াড়ি জীবনে মিসবাহ ছিল রক্ষণাত্মক। আক্রমণ করার বদলে অপেক্ষায় থাকতো প্রতিপক্ষ কখন ভুল করে। আরব আমিরাতে এমন খেলে সে অনেক ম্যাচ জিতিয়েছে। কিন্তু পাকিস্তানের এমন একজনকে দরকার যিনি প্রতিপক্ষের পরিকল্পনার দিকে না তাকিয়ে থেকে নিজের বিবেচনা দিয়েই মাত করে দিতে পারবেন।’

Bellow Post-Green View