চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বিজেপির নতুন সভাপতি জগৎ প্রকাশ নাড্ডা

ক্ষমতাসীন ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) নতুন সভাপতি হয়েছেন জগৎ প্রকাশ নাড্ডা। সোমবার বর্তমান সভাপতি অমিত শাহ’র স্থলাভিষিক্ত হয়েছেন তিনি।

নতুন সভাপতির দায়িত্বগ্রহণ উপলক্ষে বিজেপি সদর দপ্তরে জমকালো অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।  এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

এর আগে সকালে নিজের মনোনয়ন পত্র দাখিল করেন জেপি নাড্ডা। তারপর বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় বিজেপি দলের প্রধান পদে নির্বাচিত হন তিনি।

ওই অনুষ্ঠানে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদের প্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেন, এটা বিজেপির সমস্যা নয়, কারণ ‘ভুল’। আসলে গেরুয়া শিবির মানুষের খুব প্রিয় হয়ে উঠেছে। সেই কারণেই বিজেপির রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বীরা মিথ্যের পর মিথ্যে বলে চলেছে।

বিজ্ঞাপন

মোদি বলেন, ‘নির্বাচনি রাজনীতিতে যাদের মানুষ বাতিল করে দিয়েছে, যাদের কথা মানুষ আর গ্রহণ করছে না— তাদের হাতে সামান্য অস্ত্রই বাকি রয়েছে। তারই অন্যতম হল মিথ্যে ও গুজব ছড়ানো।’

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনে আফগানিস্তান, পাকিস্তান, বাংলাদেশ থেকে ২০১৫ সালের আগে আগত অমুসলিম শরণার্থীদের নাগরিকত্ব দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। সমালোচকদের মতে, এই আইন বৈষম্যমূলক এবং সংবিধানে বর্ণিত দেশের ধর্মনিরপেক্ষ ভাবমূর্তির পরিপন্থী।

এর আগে সভাপতি হিসেবে জগৎ প্রকাশ নাড্ডার নাম প্রথমে প্রস্তাব করেন পার্টির সাবেক প্রধান ও সংসদীয় কমিটির ব্যবস্থাপনা পরিষদের সদস্য অমিত শাহ, রাজনাথ সিং এবং নীতিন গাড়কারি। পরে বিজেপি জাতীয় কাউন্সিলের অন্যান্য সদস্যরাও ওই প্রস্তাবকে সমর্থন করেন।

২০১৯ সালের জুনে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ প্রধানমন্ত্রীকে লিখেছিলেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে নির্বিঘ্নে দায়িত্ব পালন করার লক্ষ্যে তিনি পার্টি প্রধানের পদ থেকে অব্যাহতি চান। তারপর থেকেই বিজেপির নতুন পার্টি প্রধান খোঁজা হচ্ছিল।

বিজ্ঞাপন