চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বিজন-আরিফদের সাথে যুক্ত হলেন অনুরাগ কাশ্যপ

বাংলাদেশের পরিচালক-প্রযোজক বিজন ইমতিয়াজ ও আরিফুর রহমানের ‘গুপী বাঘা প্রোডাকশন্স’ এর চলচ্চিত্রে প্রযোজক হিসেবে যুক্ত হলেন ভারতীয় জনপ্রিয় পরিচালক ও প্রযোজক অনুরাগ কাশ্যপ।

যে সিনেমার সাথে তিনি যুক্ত হয়েছেন, সেটির নাম একা (সলো)। পরিচালনায় আছেন কলকাতার পরিচালক সুমন সেন।

‘একা’ চলচ্চিত্রটি এবছর ফ্রেঞ্চ ইন্সটিটিউটের লা ফেব্রিক-এ নির্বাচিত হয়েছে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের তরুণ নির্মাতাদেরকে আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র অঙ্গনে পরিচয় করিয়ে দেয় লা ফেব্রিক।

ফ্রান্সের কান চলচ্চিত্র উৎসব চলাকালেই কয়েক দফা বৈঠকে এই যৌথ পথচলা আনুষ্ঠানিক রূপ নিয়েছে বলে জানিয়েছে গুপী বাঘা প্রোডাকশন।

এই প্রকল্পে আগেই যোগ দিয়েছেন ফরাসি প্রযোজক ডমিনিক ভেলিন্সকি। বাংলাদেশের আরিফুর রহমান এবং বিজন ইমতিয়াজের গুপী-বাঘা প্রোডাকশন্সও প্রযোজনার দায়িত্বে আছে।

বিপ্লব নামের এক ৫৬ বছর বয়সী এক ডায়াবেটিকস বিমা এজেন্টকে ঘিরে ‘একা’ ছবির গল্প। প্রতি সকালে ভিড় বাসে চেপে অফিস যাওয়ার পথে শহরের মূল একটি চত্বরে নির্মাণাধীন এক বিশাল ভাস্কর্যের পায়ের আঙ্গুলে চোখ যায় তার। নীল তেরপালে ঢাকা ভাস্কর্যটি একজন সাধারণ মানুষের। নির্মাণ কাজ শেষ হলে তা উদ্বোধন করবেন রাষ্ট্রপতি।

ছবি গল্প যত গভীরে যায়, বিপ্লবের হতাশা তত বাড়তে থাকে। ব্যর্থতার পাল্লা ভারী হতে থাকে। নিজেকে ভালবাসায় ব্যর্থ মনে হয়। সমাজের প্রতি ক্ষোভ জন্মাতে থাকে। একসময়ে তার অনুশোচনা ক্ষোভে রূপ নেয়। প্রতিবাদী হয়ে ওঠেন তিনি। একসময় তিনি ডাক দেন বিদ্রোহের। সেই বিদ্রোহ শক্তিশালী গণ বিদ্রোহে রূপ নিয়ে পুরো বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে।

বিজ্ঞাপন

ছবি প্রসঙ্গে ভ্যারাইটিকে অনুরাগ কাশ্যপ বলেন, ‘এমন কাজ খুঁজে পাওয়া আনন্দের যেখানে আসলেই কাজ করার সুযোগ আছে। ছবির আইডিয়া, স্ক্রিপ্ট ভালো লেগেছে। ফ্রান্স-বাংলাদেশ-ভারতের নির্মাতাদের একসঙ্গে হওয়ার এই সুযোগ পেয়ে আমি আনন্দিত’।

২০১৯ সালে গোয়ার ‘ফিল্ম বাজার’-এ অংশ নিয়েছিল ‘একা’। এরপর ২০২০ সালে অংশ নিয়েছে ‘টরিনো নেক্সট’-এ। ছবির শুটিং শুরু হবে আগামী বছরের মাঝামাঝি সময়ে।

ডমিনিক ভেলিন্সকি ছবি প্রসঙ্গে বলেন, ‘বিজন ও আরিফুর যখন গোয়াতে সুমন সেনের সঙ্গে আমার পরিচয় করিয়ে দেন এবং ‘একা’ সম্পর্কে ধারণা পাই, আমি সেখানেই রাজি হয়ে যাই। নানা দেশের মানুষদের একটি দল পেয়ে এখন আমি আরও গর্বিত।’

সুমন সেন বলেন, ‘আমার জন্য খুবই বিশেষ মুহূর্ত এটি। গল্পটি নানা দেশের অনেক মানুষকে এক সুতোয় বেঁধেছে বলে আমি আনন্দিত। অনুরাগের উপস্থিতি ছবির প্রযোজনাকে ভিন্ন ধাপে নিয়ে যাবে এবং লক্ষ্য অর্জনে সহায়তা করবে।’

ধ্রুব জাগাসিয়া ও অক্ষয় ঠাকরের সঙ্গে অনুরাগের প্রযোজনা সংস্থা ‘গুড ব্যাড ফিল্মস’র যাত্রা শুরু হয় ২০২০ সালে।

বিজন ইমতিয়াজ ২০২২ সালে পরিচালনা করবেন ‘প্যারাডাইস’ নামের একটি সিনেমা। বাংলাদেশের একটি বিচ্ছিন্ন দ্বীপের ১৪ বছর বয়সী মাদ্রাসা পড়ুয়া এক ছাত্রকে নিয়ে ছবির গল্প। এরআগে ‘মাটির প্রজার দেশে’ নামে একটি সিনেমা নির্মাণ করে প্রশংসিত হয়েছেন তিনি।

এদিকে আরিফুর রহমান ও বিজন ইমতিয়াজের প্রযোজিত ‘মুভিং বাংলাদেশ’ এর কাজ চলছে। প্রযোজক হিসেবে সঙ্গে আছেন ফ্রান্সের ট্রান বিচ-কুয়ান ও তাইওয়ানের প্যাট্রিক মাও হুয়াং। ছবিটি পরিচালনা করছেন নুহাশ হুমায়ূন। ছবির গল্প রাইড শেয়ারিং প্রতিষ্ঠান ‘পাঠাও’ এর প্রতিষ্ঠাতা ইলিয়াসকে ঘিরে।

বিজ্ঞাপন