চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বিচারপতির আকষ্মিক পরিদর্শনের পর যা হল

সুপ্রিম কোর্টের এফিডেভিট শাখায় রোববার আপিল বিভাগের বিচারপতি মোহাম্মদ ইমান আলী আকষ্মিক পরিদর্শন করেন।

বিচারপতির এই আকষ্মিক পরিদর্শনের বিস্তারিত তথ্য একটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে তুলে ধরে হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

সুপ্রিম কোর্টের মুখপাত্র মুহাম্মদ সাইফুর রহমানের দেয়া ওই সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ‘সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি কর্তৃক আনিত বিভিন্ন অভিযােগের প্রেক্ষিতে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হােসেন আপিল বিভাগের জ্যেষ্ঠ বিচারপতি মােহাম্মদ ইমান আলীকে এফিডেভিট শাখার বিভিন্ন সমস্যা চিহ্নিত করার জন্য পরিদর্শনের নির্দেশ প্রদান করেন। সে প্রেক্ষিতে রোববার বেলা ১২ টায় বিচারপতি মোহাম্মদ ইমান আলী সুপ্রিম কোর্টের এফিডেভিট শাখা পরিদর্শন করেন। এই পরিদর্শনকালে সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল এবং উভয় বিভাগের রেজিস্ট্রার ও স্পেশাল অফিসারসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। পরিদর্শনকালে বিচারপতি মোহাম্মদ ইমান আলী এফিডেভিট শাখায় অধিক জনসমাগম দেখতে পান এবং ৪৩ ব্যক্তিকে সনাক্ত করেন। ঐ সকল ব্যক্তি এফিডেভিট শাখায় তাদের অবস্থানের পক্ষে কোন ব্যাখ্য প্রদান করতে পারেননি। পরবর্তিতে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, তাদের মধ্যে ৩৫ জন আইনজীবী ক্লার্ক এবং ৮ জন বহিরাগত ব্যক্তি, যারা আইনজীবী ক্লার্কদের সহায়তায় এফিডেভিট শাখায় প্রবেশ করেছেন। এরই মধ্যে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির কার্যনির্বাহী কমিটির সম্পাদক ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল ও অন্যান্য সদস্যবৃন্দ এফিডেভিট শাখায় আসেন। এরপর তাদের কাছে ওই ৪৩ ব্যক্তির নাম ও পরিচয় সরবরাহ করা হয়। একপর্যায়ে ওই ৪৩ ব্যক্তিকে মৌখিকভাবে সতর্ক করা হয় এবং তারা মুচলেকা দেয় যে, তারা এফিডেভিট শাখায় ভবিষ্যতে কোন শৃঙ্খলা ভঙ্গ করবেন না। এছাড়া, এফিডেভিট শাখার কর্মকর্তা-কর্মচারীদেরও আজ সতর্ক করা হয়।

বিজ্ঞাপন

সুপ্রিম কোর্ট মুখপাত্রের দেয়া সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, ‘আজকের পরিদর্শন কার্যক্রম বিষয়ে বিচারপতি মােহাম্মদ ইমান আলী একটি লিখিত প্রতিবেদন প্রধান বিচারপতির কাছ্র উপস্থাপন করবেন।’