চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বিএনপি ঘূর্ণিঝড়-বজ্রপাতের জন্যও সরকারকে দায়ী করবে: কাদের

বিএনপি নেতারা সবকিছুতে কেবল সরকারের দোষ দেখেন মন্তব্য করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ঘূর্ণিঝড়-বজ্রপাতে মৃত্যুর জন্যও হয়তো তারা একদিন সরকারকে দায়ী করবে।

আজ মঙ্গলবার রাজধানীতে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে করোনাভাইরাসের সুরক্ষার সামগ্রী বিতরণের এক অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘করোনাভাইরাস বাড়তে পারে, সেজন্য সরকার সব বিষয়ে সেভাবে নজর রাখছে। কাজ করছে।’

“আমরা প্রথম ঢেউ অতিক্রম করেছি, দ্বিতীয় ঢেউও অতিক্রম করতে চলেছি। জীবন ও জীবিকার সমন্বয় করে সরকার পরিস্থিতি মোকাবেলা করছে। এতে একজন মানুষও অনাহারে মারা গেছেন বলে আমাদের জানা নাই।”

করোনাভাইরাসের ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের কারণে দেশের সীমান্ত এলাকাগুলোতে সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় সবাইকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানান ওবায়দুল কাদের।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, “প্রাণহানী বাড়ছে। এই অবস্থায় পরিস্থিতি স্টেবল- এ কথা বলা যায় না। সংক্রমণ কিছুটা ঊর্ধ্বমুখী। আসলে করোনা আনপ্রেডিক্টেবল। কখন যে কোন দিকে মোড় নেবে বলা মুশকিল। কাজেই আমাদের সবসময়ই সতর্ক থাকতে হবে।”

বিএনপি নেতাদের কটাক্ষও করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘‘গত এক যুগে বিএনপি যে সকারবিরোধী আন্দোলনে সাফল্যের মুখ দেখেনি, বিএনপি মহাসচিব এখন আবার নতুন করে আন্দোলনের হাঁকডাক শুরু করেছেন। এখন আন্দোলনটা কোন বছর হবে? দেখতে দেখতে ১২ বছর, আন্দোলন হবে কোন বছর? একবার বলে এসএসসি পরীক্ষা, আবার বলে এইচএসসি পরীক্ষার পরে। আবার বলে রোজার ঈদের পরে কিংবা কোরবানির ঈদের পরে। কত ঈদ ও পরীক্ষা চলে গেল, কিন্তু বিএনপির আন্দোলনতো চোখে পড়েনি।’’

এ সময় মহাখালীতে আগুনের ঘটনায় বিএনপির সমালোচনার জবাবে তিনি বলেন, ‘সাততলা বস্তিতে আওয়ামী লীগের লোকজন আগুন লাগাতে যাবে কেন? আমরা তো শান্তিতে আছি। আগুন লাগিয়ে মানুষের জন্য নতুন করে দুর্ভোগ সৃষ্টি করবো কেন? আগুন লাগানোর রাজনীতি তো করে বিএনপি। তারা সবকিছুতেই সরকারের দোষ দেখে। সামনে বজ্রপাত-ঘূর্ণিঝড়ের জন্যও হয়তো সরকারকে দায়ী করবে।’

আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দীর সভাপতিত্বে দলের শিক্ষা ও মানবসম্পদ বিষয়ক সম্পাদক শামসুন নাহার চাঁপা, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক রোকেয়া সুলতানা, কার্যনির্বাহী সদস্য সৈয়দ আবদুল আউয়াল শামীম এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

কর্মসূচীতে আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপ-কমিটির উদ্যোগে হাই ফ্লো ন্যাজাল ক্যানোলা, অক্সিজেন কনসেন্ট্রেটর, অক্সিজেন সিলিন্ডারসহ করোনা সুরক্ষাসামগ্রী বিতরণ করা হয়।

বিজ্ঞাপন