চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্ট পৃথক প্রার্থীর তালিকা প্রকাশ করবে

একাদশ জাতীয় নির্বাচনে শুক্রবার যেকোন সময় বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্টের অন্য দল (গণফোরাম, জেএসডি, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ, নাগরিক ঐক্য) এর প্রার্থীদের পৃথক পৃথক তালিকা প্রকাশ করা হবে।

Advertisement

ঐক্যফ্রন্টের সমন্বয় কমিটির সদস্য ও জেএসডি নেতা মমিনুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, শুক্রবার বিএনপি তাদের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করার কথা। আর ঐক্যফ্রন্টের তালিকা প্রকাশ করা হবে বিকেল ৩টায়, ঐক্যফ্রন্ট অফিসে।

বুধবার ও বৃহস্পতিবার বিএনপির চূড়ান্ত প্রার্থী ঘোষণার কথা থাকলেও দুই দফায় তা পিছিয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাতে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর প্রার্থী ঘোষণার কথা জানালেও শেষ পযন্ত প্রকাশ করা হয়নি।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য আসন বণ্টন ও নির্বাচনী ইশতেহারের খসড়া চূড়ান্ত করতে গত কয়েকদিন ধরেই দফায় দফায় বৈঠকে করেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতারা। সেখানে বিস্তর আলোচনা চলে। নানা বিষয়ে বিতর্কও হয়।

জামায়াত ইস্যু নিয়ে বেশ কথাবার্তা হয় বলে জানা গেছে। মূলত ড. কামাল হোসেন কখনও জামায়াতের সম্পৃক্ততা চাননি। বিএনপির পক্ষ থেকে জামায়াতকে যে ২৫ টি আসন ছাড় দিচ্ছে এতে ড. কামাল সহ ঐক্যফ্রন্টের অনেক নেতাই অসন্তুষ্ট। তারপরও ঐক্যের স্বার্থে বিষয়টি আড়াল করছেন নেতারা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ঐক্যফ্রন্টের এক নেতা চ্যানেল আই অনলাইনকে বলেন, জামায়াতকে নিয়ে যেমন ড. কামাল হোসেনসহ অনেক নেতা অসন্তুষ্ট তেমনি তারেক রহমানের হস্তক্ষেপ নিয়েও অসন্তুষ্ট।

ঐক্যফ্রন্ট সূত্রে জানা যায়, ঐক্যফ্রন্টের বিভিন্ন বৈঠকে এসব বিষয়ে নিয়ে বিস্তর আলোচনা হয়। শেষ অবধি জাতীয় ঐক্যফ্রন্টকে কতটি আসন ছাড় দিচ্ছে বিএনপি তা নিয়েও কথা হয়।

নাগরিক ঐক্যের একজন শীর্ষ নেতা চ্যানেল আই অনলাইনকে বলেন, ঐক্যফ্রন্টকে ২০-২১ আসন ছাড় দিতে রাজি হয়েছে বিএনপি। এর মধ্যে গণফোরাম ১০ আসন, জেএসডি ৪, নাগরিক ঐক্য ৪ ও কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের জন্য ৩টি আসন।

এবিষয়ে বিস্তারিত জানা যাবে আজ ৩টায়।

ঐক্যফ্রন্ট নেতারা যেসব আসনে চূড়ান্ত মনোনয়ন পাবেন ওইসব আসনে বিএনপি ও শরিক দলের অন্য যারা মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন তারা তা প্রত্যাহার করে নেবেন।