চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ব্যর্থ বিএনপির জন্য জরুরী ভাবে জরুরী অবস্থা দরকার: ওবায়দুল কাদের

বিএনপি একটি ব্যর্থ রাজনৈতিক দল দাবি করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন: দেশকে ডেঙ্গু মুক্ত করতে বিরোধী দলের (বিএনপি) একটি দায়িত্ব রয়েছে।

কিন্তু তারা ডেঙ্গু মোকাবেলায় ব্যর্থ। তাদের নেতারা ডেঙ্গুর প্রেক্ষিতে জরুরি অবস্থা ঘোষণার যে দাবি জানিয়েছেন, আমি বলবো ব্যর্থ বিএনপির জন্য জরুরী ভাবে জরুরী অবস্থা দরকার।

বিজ্ঞাপন

শনিবার রাজধানীর ফার্মগেটে আওয়ামী লীগের তিন দিনব্যাপী পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযানের শেষ দিনে  তিনি এ কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন: এখানে বিরোধী দলের দায়িত্ব আছে। পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযানে কোথাও তারা নেই। তারা বলে কখনও মহামারী ঘোষণা করা হোক। আবার কখনও জরুরি অবস্থা ঘোষণা করতে বলে। আমি বলবো জরুরি অবস্থা তাদের প্রয়োজন।

বিএনপির জরুরী অবস্থা প্রয়োজন দাবি করে তিনি বলেন: তারা দল হিসেবে ব্যর্থ, আন্দোলনে ব্যর্থ নির্বাচনেও তারা ব্যর্থ। জরুরি অবস্থা তাদেরই প্রয়োজন। বিরোধী দল হিসেবে তারা ব্যর্থ ডেঙ্গু প্রতিরোধে। তাদের ব্যর্থতার এ সংকট থেকে উদ্ধার করতে জরুরিভাবে জরুরি অবস্থা দরকার।

বিজ্ঞাপন

এ সময় তিনি এশিয়া জুড়ে ডেঙ্গুর বিস্তারের একটি চিত্র তুলে ধরেন। দায়িত্বশীলদের কাজ করার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন: আমরা কথা বলবো না। কাজ করব। এই সময়টা খুবই সংবেদনশীল।

বেশি কথাও দেশের জন্য ক্ষতিকর হতে পারে। অতিকথন থেকে আমি দায়িত্বশীল সকলকে বিরত থাকার আহ্বান জানাচ্ছি। কথা কম বলে আমাদের বেশি বেশি কাজ করতে হবে। ডেঙ্গুতে আতঙ্কিত না হয়ে সতর্ক হওয়ার আহ্বান জানান আওয়ামী লীগের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সাংগঠনিক এ নেতা।

তিনি বলেন: আতঙ্ক থেকে মানুষকে বাঁচাতে হবে। একটি মহল আতঙ্ক ছড়াচ্ছে, যেন ঈদের সময় মানুষ বাড়িঘরে না যায়। সকলের ইচ্ছা আছে পরিবারের সাথে ঈদ উদযাপন করবে। সকলেই বাড়িতে যাবে। কিন্তু সকলকে সতর্ক থাকতে হবে।

তিনি আরও বলেন: আওয়ামী লীগ সরকার ডেঙ্গু নির্মূলকে লড়াই হিসেবে নিয়েছে। আমরা ডেঙ্গু মুক্ত বাংলাদেশ গড়ে তুলবো। তিনি আওয়ামী লীগ নেতা এবং বিশেষজ্ঞ ডাক্তারদের সমন্বয়ে ডেঙ্গু পরিস্থিতি মোকাবেলায় বিশেষ মনিটরিং সেল চালুর কথা জানান।

এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, বিএম মোজাম্মেল, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা, ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম আতিক, উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি এ কে এম রহমত উল্লাহসহ অনেকে।

Bellow Post-Green View