চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বাড়তে থাকা সংক্রমণ ও হাসপাতালে শয্যা শঙ্কট নিয়ে যা বললেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী

টানা কয়েকদিন করোনায় মৃত্যু ও সংক্রমণ বাড়তে থাকায় উদ্বেগ জানিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলছেন, প্রতিদিনি গড়ে পাঁচ শ’ থেকে এক হাজার জন হাসপাতালে ভর্তি হলে সপ্তাহখানেকের মধ্যেই হাসপাতালে রোগীদের স্থান দেওয়া সম্ভব হবে না।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নতুন ১০ শয্যার আইসিইউ ইউনিট উদ্বোধন অনুষ্ঠানে অনলাইনে যুক্ত হয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেছেন। স্বাস্থ্যবিধি মানার জন্য জনগণকে উদ্বুদ্ধ করার ওপর জোর দিয়ে অনলাইন অনুষ্ঠানে মন্ত্রী বলেছেন, না হলে বিপর্যয়ে পড়বে দেশ।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

হাসপাতালসংশ্লিষ্টরা বলে আসছিলেন, এভাবে রোগী বাড়তে থাকলে কোভিডবিশেষায়িত হাসপাতালগুলোতে শয্যা বাড়িয়েও চাপ সামাল দেয়া যাবে না। একই সতর্কবার্তা দিলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। তিনি বলেন, রাজধানীর কোভিডবিশেষায়িত হাসপাতালগুলোতে সরকারি-বেসরকারিভাবে আরো সাড়ে তিন হাজার বেড বাড়ানো হবে। সাড়ে তিন হাজার বেড বাড়ানো হলেও এক সপ্তাহের মধ্যে সব বেড ভরে যাবে। বেড বাড়িয়ে করোনা নিয়ন্ত্রণ সম্ভব না।

বিজ্ঞাপন

স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরো বলেন, রাতারাতি করোনা পরিস্থিতি উন্নয়ন সম্ভব না। সরকার যেসব নিয়ন্ত্রণ আরোপ করছে সেগুলো বাস্তবায়ন করতে হবে। সাধারণ মানুষকে মাস্ক পরানো, বাসে অর্ধেক যাত্রী ওঠানো বাস্তবায়ন করতে হবে।

ঢাকায় সংক্রামক রোগ ও জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের আন্তর্জাতিক সম্মেলনে, সংক্রমণ মোকাবেলায় জনগণকে স্বাস্থ্যবিধি মানাতে মানুষের আচরণ পরিবর্তন কৌশলের ওপর জোর দেন বিশেষজ্ঞরা। তারা বলেন, জোর-জবরদস্তি নয় বরং ৯০ শতাংশ মানুষের কাছে কার্যকর তথ্য পৌঁছে দেয়ার পর যদি ৩০ শতাংশ মানুষের মাঝে সেই তথ্য আস্থা অর্জন করে তাহলে বাকি ৭০ শতাংশও নিজেরাই স্বাস্থ্যবিধি মানবে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলছেন, সরকারও সেই কৌশলেই জনগণকে স্বাস্থ্যবিধি মানাতে কাজ করবে।