চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বাসায় স্ত্রী-কন্যাসহ সাবেক ব্যাংক কর্মকর্তার মরদেহ

আখতারুজ্জামান আখতার: পাবনায় অবসরপ্রাপ্ত এক ব্যাংক কর্মকর্তা এবং তার স্ত্রী ও মেয়েকে কুপিয়ে ও শ্বাস রোধ করে হত্যা করা হয়েছে।

শুক্রবার বিকাল ৩টার দিকে পুলিশ স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে শহরের দক্ষিণ রাঘবপুরের একটি বাড়ির দরজা ভেঙে ৩ জনের মরদেহ উদ্ধার করে।

বিজ্ঞাপন

নিহতরা হলো, রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল জব্বার (৬৫), তার স্ত্রী ছুম্মা খাতুন (৬০ এবং মেয়ে সানজিদা খাতুন (১২)। নিহত আব্দুল জব্বার ওই বাড়িতে ভাড়া থাকতেন।

বিজ্ঞাপন

পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাসিম আহম্মেদ চ্যানেল আই অনলাইনকে জানান, ‘দক্ষিণ রাঘবপুরের ৪ ইউনিটের একটি দোতলা বাড়ির নিচ তলার একটি ইউনিটে স্বপরিবারে ভাড়া থাকতেন আব্দুল জব্বার। বাড়িটির দোতলা এবং নিচ তলার একটি ইউনিট ফাঁকা।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, প্রতিবেশীদের কাছ থেকে খবর পেয়ে পুলিশ বিকাল ৩টার দিকে ওই বাড়ির নিচতলার একটি কক্ষ থেকে আব্দুর জব্বার এবং তার স্ত্রী ও অপর একটি কক্ষ থেকে মেয়ে সানজিদার মরদেহ উদ্ধার করে। সানজিদা পাবনা শহরের কালেক্টরেট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজের ৭ম শ্রেণীর ছাত্রী।’

ওসি জানান, ধারণা করা হচ্ছে ৩/৪ দিন আগে দুর্বৃত্তরা তিনজনকে কুপিয়ে ও শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে। মরদেহে পচন ধরেছে এবং গন্ধ বেরিয়েছে।

ওসি আরো জানান, আব্দুল জব্বার যে ইউনিটে ভাড়া থাকতেন সে ইউনিটের কক্ষগুলি তছনছ করা এবং আলমিরা ভাঙা পাওয়া গেছে।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে পাবনার পুলিশ সুপার শেখ রফিকুল ইসলাম বলেন, কী কারণে এবং কারা এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে তা তাৎক্ষণিকভাবে উদঘাটন করা যাচ্ছে না। পুলিশ তদন্তে মাঠে নেমেছে। এছাড়া রাজশাহী থেকে পুলিশের বিশেষ টিম এসে ঘটনাস্থল পরিদর্শন ও সুরহতাল দেখতে রওনা হয়েছে। আলামত যাতে নষ্ট না হয়, সেজন্য রাজশাহী থেকে টিম না আসা পর্যন্ত নিহতদের মরদেহ ওই বাড়িতেই থাকবে। পুলিশ বাড়িটি পাহারা দিচ্ছে।