চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

পাকিস্তানে বাস থেকে নামিয়ে ১৪ যাত্রীকে হত্যা

পাকিস্তানের বালুচিস্তানে মাকরান কোস্টাল হাইওয়ের ওরমারা এলাকায় বাস থেকে অন্তত ১৪ জন যাত্রীকে জোরপূর্বক নামিয়ে গুলি করে হত্যা করেছে অজ্ঞাতপরিচয় সন্ত্রাসীরা। 

বিজ্ঞাপন

বালুচিস্তানের ইন্সপেক্টর জেনারেল অব পুলিশ মোহসিন হাসান বাট বলেন, ১৫-২০ জন অজ্ঞাত অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী করাচি ও গাদারের মধ্যে ভ্রমণকারী৫-৬টি বাস থামায়।

আইজিপি আরও বলেন, ১২.৩০ থেকে ১টার দিকে অস্ত্রবাহীরা ওই বাসটি থামায়, তারপর যাত্রীদের আইডিকার্ড দেখতে চায় এবং তাদের মধ্যে থেকে ১৬ জনকে নিচে নামায়। স্থানীয় কর্মকর্তাদের হিসেবে অন্তত ৩৬ জন ওই বাসে ভ্রমণ করছিলো।

আইজিপি বাট এই হত্যাকাণ্ডের কারণ হিসেবে বলেন, এটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড। নিহতদের তাদের সিএনআইসির মাধ্যমে চিহ্নিত করা হয় এবং খুব কাছ থেকে গুলি করা হয়।

বালুচিস্তানের হোম সেক্রেটারি হায়দার আলী এএফপিকে বলেন, সন্ত্রাসীরা ফ্রন্টিয়ার কর্প ইউনিফর্ম পরে ছিলো।

বিজ্ঞাপন

হামলায় অন্তত ১৪ জনকে গুলি করে হত্যা করা হয়। আর দুজন সেখান থেকে পালিয়ে লেভিস চেকপোস্টে যেতে সক্ষম হয়। তাদের ওরমারা হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়। নিহতদের মধ্যে একজন নৌ কর্মকর্তা এবং কোস্টগার্ড সদস্যও ছিলো।

লেভিস এবং অন্যান্য আইন প্রয়োগকারী কর্মকর্তারা দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছান এবং ঘটনা তদন্তে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেন। তবে এই হত্যাকাণ্ডের কারণ এবং নিহতদের পরিচয় এখনো জানা যায়নি। কেউ এই হত্যার দায়ও স্বীকার করেনি।

হোম মিনিস্টার জিয়া লানগোভ বলেন, অস্ত্রধারীরা এলাকা ছাড়িয়ে পালিয়ে যায়, এই ধরনের ঘটনা সহ্য করা হবে না, যারা এই ভয়াবহ আক্রমণ চালিয়েছে তাদের ছাড় দেওয়া হবে না।

এর আগে ২০১৫ সালেও বালুচিস্তানের মাস্তাং এলাকায় এই ধরণের আক্রমণ চালানো হয়। সেখানে অস্ত্রধারীরা ২৪ জন যাত্রীকে কোচ থেকে আটক করে এবং তাদের মধ্যে অন্তত ১৯ জনকে হত্যা করে।

Bellow Post-Green View