চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বার্সা পরিচালকরা চান মেসিকে বিক্রি করে দেওয়া হোক!

লিওনেল মেসি শেষ পর্যন্ত বার্সেলোনায় থেকে যাবেন, এমনটাই মনে করেন ক্লাবটির বেশিরভাগ পরিচালক। তবে কোনো কোনো বোর্ড পরিচালক ইএসপিএন’কে জানিয়েছেন, আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডকে বিক্রি করে দেওয়ার এটাই উপযুক্ত সময়!

বার্সার নিয়োগ পাবার পর নতুন কোচ রোনাল্ড কোম্যান সবার সামনেই জানিয়েছেন মেসিকে ঘিরেই গড়ে উঠবে তার নতুন দল। ক্লাবের নতুন স্পোর্টস ডিরেক্টর র‍্যামন প্লানেসও জানিয়েছেন আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডকে ধরে রাখতে চান তারা।

বিজ্ঞাপন

কিন্তু এতকিছুর পরও বার্সার বোর্ড সদস্যদের মাঝেই নাকি তৈরি হয়ে গেছে বিভাজন। কয়েকজন বোর্ড সদস্য ইএসপিএনকে জানিয়েছেন, খেলোয়াড়দের উচ্চ বেতন কমিয়ে কিভাবে নতুন বার্সা গড়া যায় সেই ব্যাপারে কোম্যানকে সাহায্য করতে তারা প্রস্তুত। সেক্ষেত্রে মেসিকে যদি ছাড়তে হয় তাতেও রাজি এই বোর্ড কর্মকর্তারা!

বছরের শুরু থেকেই মেসির বার্সা ছাড়ার গুঞ্জন বেশ স্পষ্ট। শুরুর দিকে সাবেক কোচ আর্নেস্টো ভালভার্দের ছাঁটাই, সাবেক স্পোর্টস ডিরেক্টর এরিক আবিদালের সঙ্গে দ্বন্দ্ব, করোনায় খেলোয়াড়দের বেতন কমানো নিয়ে সবচেয়ে বেশি সরব ছিলেন বার্সার আর্জেন্টাইন অধিনায়ক। এখন গুঞ্জনে জোর হাওয়া দিয়েছে বায়ার্ন মিউনিখের বিপক্ষে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ৮-২ গোলে হার।

বিজ্ঞাপন

কাতালোনিয়ান রেডিও রেসওয়ান বৃহস্পতিবারই জানিয়েছে, নতুন কোচ কোম্যানের সঙ্গে মেসির সাক্ষাৎ ব্যর্থ হয়েছে। নতুন কোচের কথায় মন গলেনি ছয়বারের ব্যালন ডি’অর জয়ী মহাতারকার। এবার নাকি সত্যিই তিনি প্রিয় ন্যু ক্যাম্প ছাড়তে চান।

ইএসপিএন জানাচ্ছে, দুই প্রিয় সতীর্থ লুইস সুয়ারেজ ও জর্ডি আলবার ক্লাব ছাড়ার‍ গুঞ্জনে আরও বেশি হতাশ হয়ে পড়েছেন মেসি। সুয়ারেজ যে নতুন মৌসুমেও বার্সা ছাড়ছেন তা খানিকটা স্পষ্ট হয়েছে শুক্রবার ইনস্টাগ্রামে তার এক পোস্ট থেকে। সেখানে উরুগুয়েন তারকা লিখেছেন, ‘কখনোই ভুলে যেও না তোমার ভাগ্যের কারিগর তুমি নিজে!’

তবে বেশিরভাগ বোর্ড কর্মকর্তা নাকি মনে করেন যে, মেসি আরেকটা বছর বার্সায় থাকবেন। অন্তত ২০২১ সাল পর্যন্ত চুক্তি শেষ করে তবেই তিনি দলবদলের ভাবনা মাথায় আনবেন। আর নতুন কোচ মেসির পরিকল্পনা বদলাতে পারবেন এমন ভরসাও তাদের আছে।

আবার এর বিকল্প ভাবনাও আছে। বোর্ডের একজন উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তা ইএসপিএনকে জানিয়েছেন, যদি বার্সেলোনায় মেসির মন আর না টেকে তবে তাকে ধরে রাখার কোন যুক্তি নেই। এরচেয়ে বড় রকমের দলবদল গড়ে তাকে চলে যেতে দেওয়াই ভালো। এতে নগদ অর্থও পাবে বার্সা আর মেসির উচ্চ বেতনের ভাবনা থেকেও মুক্তি পাওয়া যাবে। মেসির দলবদলের টাকা দিয়ে তরুণদের নিয়ে পছন্দের এক দল গড়ার সুযোগ পাবেন কোম্যান।

বার্সা প্রেসিডেন্ট জোসেপ মারিয়া বার্তেমেউ অবশ্য খুব করেই চাইছেন মেসির সঙ্গে অন্তত আরও দুই বছরের চুক্তি নবায়ন করতে। অন্তত নিজের স্বার্থেই এই চুক্তি চাইছেন বার্তেমেউ। নইলে তার নামের পাশে বসে যাবে ‘সেই প্রেসিডেন্ট যে মেসিকে ছেড়ে দিয়েছে’ প্রকৃতির কলঙ্ক!