চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বাজেটের ঘাটতি এক তৃতীয়াংশের বেশি

বিশাল ঘাটতি নিয়ে জাতীয় সংসদে আগামী ২০২১-২২ অর্থবছরের বাজেট পেশ করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। এবারের বাজেটের পরিমাণ নির্ধারণ করা হয়েছে ৬ লাখ ৩ হাজার ৬৮১ কোট টাকা। যা দেশের মোট জিডিপির ১৭ দশমিক ৪৭ শতাংশ।

এই বাজেটে ঘাটতির পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ২ লাখ ১৪ হাজার ৬৮১ কোটি টাকা। যা মোট জিডিপির ৬ দশমিক ২ শতাংশ। অর্থাৎ মোট বাজেটের এক তৃতীয়াংশের চেয়ে বেশি ঘাটতি ধরা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

এই ঘাটতি চলতি (২০২০-২১) অর্থবছরের ঘাটতির চেয়ে ২৭ হাজার ২৩০ কোটি টাকা বেশি।

বিজ্ঞাপন

চলতি (২০২০-২১) অর্থবছরের বাজেটে ঘাটতি প্রাক্কলন করা হয়েছিল ১ লাখ ৯০ হাজার কোটি টাকা। সংশোধিত বাজেটে ঘাটতি নির্ধারণ করা হয়েছে ১ লাখ ৮৭ হাজার ৪৫১ কোটি টাকা, যা জিডিপি’র ৬ দশমিক ১ শতাংশ।

এবার মূল বাজেটে ঘাটতির বিপরীতে বৈদেশিক উৎস হতে (বৈদেশিক অনুদানসহ) অর্থায়নের প্রাক্কলন ধরা হয়েছে ১ লাখ ১ হাজার ২২৮ কোটি টাকা, যা জিডিপির ২ দশমিক ৯ শতাংশ। অভ্যন্তরীণ উৎস থেকে অর্থায়ন নির্ধারণ করা হয়েছে ১ লাখ ১৩ হাজার ৪৫৩ কোটি টাকা।

অভ্যন্তরীণ উৎসের মধ্যে ব্যাংক ব্যবস্থা হতে অর্থায়নের পরিমাণ ধরা হয়েছে ৭৯ হাজার ৭৪৯ কোটি টাকা। এর মধ্যে ব্যাংক থেকে সরকার ধার নিবে ৭৬ হাজার ৪৫২ কোটি টাকা। যা জিডিপির ২ দশমিক ৬ শতাংশ।

চলতি অর্থবছরের বাজেটে অভ্যন্তরীণ উৎসের মধ্যে ব্যাংক ব্যবস্থা হতে অর্থায়নের পরিমাণ ধরা হয়েছিল ৭৯ হাজার ৭৪৯ কোটি টাকা।

বিজ্ঞাপন