চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বাজারে আসছে দিনাজপুরের বিষমুক্ত আম

দিনাজপুরে এ বছর আমের ফলন ভালো হয়েছে। স্থানীয় হিসেবে আম উৎপাদনের পরিমাণ প্রায় ৭০ হাজার মেট্রিক টন। যা থেকে দেড়শ কোটি টাকা আয় হবে বলে আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা। এখন জেলার সর্বত্র চলছে আম সংগ্রহ ও বেচাকেনার উৎসব।

ব্যক্তি উদ্যোগে দিনাজপুরে অনেকেই আমের বাগান করে পেয়েছেন আর্থিক সাফল্য। আম সংগ্রহ, বাছাই, বেচা-কেনা ও বহনের কাজে মৌসুমি কর্মসংস্থানে জড়িয়ে পড়েছে কমপক্ষে ৫০ হাজার মানুষ।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

পাঁচশো গাছের এক আম বাগানের মালিক জানালেন, তার সবগুলো গাছেই প্রচুর ফলন হয়েছে।

তার মতো দিনাজপুরের আরও ব্যক্তি এরকম বাগান করলে এখান থেকেই দেশের আমের চাহিদার একটি বড় অংশ পূরণ সম্ভব হবে।

বিজ্ঞাপন

জেলায় আমবাগান রয়েছে প্রায় চার হাজার দু’শ ৪৬ হেক্টর জমিতে। গত বছর ফরমালিন আতংকে আমের বাজারে ধস নামায় এবার বিষমুক্ত আম উৎপাদনের অঙ্গীকার করেছেন বাগান মালিকরা।

স্থানীয় এক বাগান মালিক জানান, বাগানে বিভিন্ন প্রজাতির আম উৎপাদিত হচ্ছে। শতভাগ ফরমালিনমুক্ত এই আম দেশ এবং বিদেশের বাজারে সরবরাহ করছেন। জেলার বেশ কিছু এলাকায় আম বাজার গড়ে উঠলেও বাগান থেকে আম সংগ্রহেই বেশি আগ্রহী ক্রেতারা।

চলতি মৌসুমে দেড়শ’ কোটি টাকার আমের বেচাকেনা হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানাচ্ছে কৃষি বিভাগ। দিনাজপুর জেলার কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক গোলাম মোস্তফা জানান, গত বারের তুলনায় এবার আমের ফলন ভালো হওয়ার আশা করছেন তারা।

মাটির গঠনগত কারণে দিনাজপুরের আমের মান ভালো বলে জানান তিনি।