চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘বাঘা যতীনদের আত্মত্যাগ মুক্তিযোদ্ধাদের অনুপ্রাণিত করেছিল’

শহীদ বিপ্লবী বাঘা যতীনের মৃত্যুবার্ষিকীতে নির্মূল কমিটির ওয়েবিনারে বিশিষ্টজন

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে তরুণ বাঙালি মুক্তিযোদ্ধারা অগ্নিযুগের বিপ্লবী ক্ষুদিরাম, বাঘা যতীন, আশফাকউল্লাহ, সুর্য সেন, ভগৎ সিং ও প্রীতিলতার মতো অসংখ্য বিপ্লবীদের আত্মত্যাগে অনুপ্রাণিত হয়েছিল।

তাদের দেখানো পথেই মুক্তিযোদ্ধারা দেশমাতৃকাকে দখলদারমুক্ত করার জন্য অকাতরে জীবনদান করেছেন। বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানও বাংলাদেশ স্বাধীন করার জন্য গণতান্ত্রিক আন্দোলন করেছেন, অসহযোগ আন্দোলনও করেছেন। কিন্তু চূড়ান্ত পর্বে তিনি সশস্ত্র সংগ্রামের পথই বেছে নিয়েছিলেন।

শুক্রবার ‘উপমহাদেশের বৃটিশবিরোধী সশস্ত্র স্বাধীনতা সংগ্রাম থেকে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ’ শীর্ষক আন্তর্জাতিক ওয়েবিনারে বিশিষ্টজনরা এসব কথা বলেন। শহীদ বিপ্লবী বাঘা যতীনের ১০৬তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি এই ওয়েবিনার আয়োজন করে।

নির্মূল কমিটির সভাপতি শাহরিয়ার কবিরের সভাপতিত্বে ওয়েবিনারে বক্তব্য রাখেন শহীদ বাঘা যতীনের পৌত্র ফরাসী গবেষক ড. পৃথ্বীন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায়, পৌত্র ইন্দুজ্যোতি মুখোপাধ্যায় (পশ্চিমবঙ্গ), ভারতের রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক পবিত্র সরকার, মৌলবাদ ও সাম্প্রদায়িকতাবিরোধী দক্ষিণ এশীয় গণসম্মিলনের সভাপতি বিচারপতি এএইচএম শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক, মুক্তিযুদ্ধে শহীদ ভাষাসংগ্রামী ধীরেন্দ্রনাথ দত্তের পৌত্রী আরমা দত্ত এমপি, অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী মুক্তিযোদ্ধা কামরুল হাসান খান, ভারতের ইতিহাস ও সংস্কৃতি গবেষক অরিন্দম মুখোপাধ্যায়, বীরকন্যা প্রীতিলতা ট্রাস্টের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি পঙ্কজ চক্রবর্তী, সুইডেনের মানবাধিকার নেতা তরুণ কান্তি চৌধুরী, বহুভাষিক সাময়িকী ‘জাগরণ’-এর হিন্দি বিভাগীয় সম্পাদক তাপস দাস ও নির্মূল কমিটির সাধারণ সম্পাদক কাজী মুকুল। সভায় সূচনা সঙ্গীত পরিবেশন করেন সঙ্গীতশিল্পী জান্নাত-ই-ফেরদৌসী।

ওয়েবিনারের সভাপতি শাহরিয়ার কবির বলেন, পশ্চিমা সাম্রাজ্যবাদীদের এদেশীয় তল্পিবাহক জামায়াতে ইসলামী এবং তাদের সমচরিত্রের দলগুলো বিভিন্ন সময়ে অগ্নিযুগের বিপ্লবীদের সন্ত্রাসী বলেছে তাদের ভাস্কর্য ভেঙেছে, প্রতিষ্ঠানের নামকরণের বিরোধিতা করেছে। একইভাবে ভারতেও আমরা অগ্নিযুগের বিপ্লবীদের উপেক্ষা ও অবমূল্যায়ন দেখেছি। অথচ বৃটিশ ঔপনিবেশিক শাসনের বিরুদ্ধে আমাদের স্বাধীনতা সংগ্রামের চুড়ান্ত রূপ ছিল একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধ এবং অবিস্মরণীয় বিজয়।

বিজ্ঞাপন

তিনি বিপ্লবী বাঘা যতীনসহ অগ্নিযুগের বিপ্লবীদের মহান আত্মদান এবং মুক্তিযুদ্ধ প্রাথমিক পর্যায় থেকে স্নাতকোত্তর পর্যায়ের পাঠ্যসূচিতে বাধ্যতামূলক করারও দাবি জানান।

ফরাসী গবেষক ড. পৃথ্বীন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায় বলেন, কিংবদন্তী বাঘা যতীন্দ্রনাথের প্রামাণ্য জীবনী প্রকাশ করা আবশ্যক। সেজন্য যোগ্যতা অনুযায়ী নির্বাচিত সদস্যমণ্ডলী নিয়ে দায়িত্বসচেতন একটি কমিটি গঠন করা প্রয়োজন। বিভিন্ন ভাষায় তার অনুবাদ প্রচার করে যতীন্দ্রনাথকে অধিষ্ঠিত করতে হবে সমকালীন রাজনৈতিক ও কর্মবীরের ন্যায্য ভুমিকায়।

ইন্দুজ্যোতি মুখোপাধ্যায় বলেন, যতীন্দ্রনাথ আপামর দেশবাসীর প্রতি তার জীবনব্যাপী ভালবাসার প্রমাণ দিয়ে নিজেকে প্রকৃত বিপ্লবী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। বাঙালিকে বলা হয় ইতিহাস বিস্মৃত জাতি- তা সঠিক কিনা জানি না। এরা অন্তত: নন- তার প্রমাণ এরা প্রতিনিয়ত দিয়ে যাচ্ছেন।

অধ্যাপক পবিত্র সরকার বলেন, ব্রিটিশ সাম্রাজ্যবাদের বিরুদ্ধে বাঙাল বিপ্লবীরা, পরে পাকিস্তানি অপশাসনের বিরুদ্ধে শেখ মুজিবের নেতৃত্বে বাঙালি মুক্তিবাহিনী অসীম বীরত্বের সঙ্গে যুদ্ধ করে বাংলাদেশের অভ্যুদয় ঘটিয়েছে। বাঙালি কোনও অন্যায়কে মেনে নেবে না, অন্ধত্বকেও না।

বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক বলেন, বাঘা যতীন দেশ স্বাধীনের জন্য সশস্ত্র বিপ্লবের যে পথ দেখিয়েছিলেন পরবর্তীকালে মাস্টারদাও তা অনুসরণ করেছিলেন। কিন্তু নেতাজি সুবাস চন্দ্র বসুও মনে করতেন যুদ্ধ ছাড়া ভারতের স্বাধীনতা সম্ভব নয়। আমাদের জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবও এই তিন বিপ্লবী নেতাকে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেছেন। প্রথমে গণতান্ত্রিক আন্দোলনের মাধ্যমে দেশ স্বাধীনের পথ বন্ধ হলে, তিনিও অস্ত্রের মাধ্যমে দেশ স্বাধীনের পন্থা অনুসরণ করেছিলেন। সম্প্রতি ধর্ম ব্যবসায়ী দুর্বৃত্তরা কুস্টিয়ায় বাঘা যতীনের ভাস্কর্য ভেঙে ফেলার চেষ্টায় ছিল। গোটা জাতির ধিক্কার রইলো তাদের জন্য।

আরমা দত্ত এমপি বলেন, মুক্তিযোদ্ধা ও স্বাধীনতাকামী বাঙালির মুক্তিসংগ্রামের অনুপ্রেরণা ছিলেন ব্রিটিশবিরোধী স্বাধীনতা সংগ্রামের মহানায়করা।

বিজ্ঞাপন