চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বাংলাদেশ থেকে চিকিৎসক-নার্স নিয়োগে সৌদির আশ্বাস

সৌদি আরবে বসবাসরত বাংলাদেশিসহ সকল অভিবাসীদের করোনাভাইরাসের ফ্রি চিকিৎসা সেবা প্রদানের জন্য সৌদি আরবের বাদশাহ সালমান বিন আব্দুল আজিজ ও যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছেন রাষ্ট্রদূত ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বিপিএম (বার)।

সৌদি স্বাস্থ্য উপমন্ত্রী ড. হানি জোখদারের সাথে এক ভার্চুয়াল সভায় রাষ্ট্রদূত এ ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

বিজ্ঞাপন

রাষ্ট্রদূত ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বিপিএম(বার) বাংলাদেশ থেকে চিকিৎসক, নার্স, টেকনিশিয়ান ও স্বাস্থ্যসেবা প্রদানকারী কর্মী সৌদি আরবে নিয়োগের জন্য অনুরোধ জানান। এছাড়া বাংলাদেশের পোস্ট-গ্র্যাজুয়েশন মেডিক্যাল ডিগ্রীর অনুমোদন ও মেডিক্যাল বিষয়ক জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা শেয়ার করা বিষয়ক প্রোগ্রামের বিষয়ে সৌদি কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানান। সৌদি স্বাস্থ্য উপমন্ত্রী এ বিষয়ে পদক্ষেপ গ্রহণ করার আশ্বাস প্রদান করেন।

রাষ্ট্রদূত সফল ও কার্যকরভাবে করোনাভাইরাস মোকাবেলার জন্য সৌদি সরকারের প্রশংসা করেন। যার ফলে সৌদি আরবে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব সর্বনিম্ন পর্যায়ে নেমে এসেছে।

বিজ্ঞাপন

সৌদি স্বাস্থ্য উপমন্ত্রী ড. হানি জোখদার জানান, সৌদি সরকার করোনার দ্বিতীয় ঢেউ এর জন্য প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে এবং সকল ধরণের স্বাস্থ্যসেবা প্রদানে প্রস্তুত রয়েছে।

রাষ্ট্রদূত ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী করোনাভাইরাসের চিকিৎসা প্রদানে দায়িত্ব পালনকালে সৌদি আরবে বাংলাদেশি চিকিৎসক ও সাস্থ্যকর্মীসহ যে সকল বাংলাদেশি অভিবাসীগণ নিহত হয়েছেন তাদের গভীর শ্রদ্ধায় স্মরণ করেন।  সৌদি স্বাস্থ্য উপমন্ত্রী ড. হানি জোখদার দায়িত্ব পালনকালে চিকিৎসকদের মৃত্যুকে সর্বোচ্চ ত্যাগ বলে অভিহিত করেন। রাষ্ট্রদূত স্বাস্থ্য উপমন্ত্রীকে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে সৌদি আরবকে ভাতৃত্বের নিদর্শন স্বরূপ পাঠানো মাস্ক ও পিপিই গ্রহণ করার জন্য অনুরোধ জানান।

বৈশ্বিক মহামারী করোনাভাইরাস এর প্রাদুর্ভাবে সৌদি আরব জুড়ে দীর্ঘসময় কারফিউ লকডাউন জারি করে সৌদি সরকার। কর্মহীন হয়ে পড়ে বিপুল সংখ্যক স্থানীয় এবং প্রবাসী নাগরিক। কর্মহীন নাগরিকদেরকে স্বাভাবিক কাজকর্মে ফিরিয়ে আনতে সৌদি সরকার নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করেন। এরপর থেকে কিছুটা স্বাভাবিক জীবনযাত্রা ফিরে আসলেও করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব এর প্রভাব এখনো বিদ্যমান। স্বাস্থ্যবিধি মেনে জীবনযাত্রা স্বাভাবিক করার চেষ্টা করছেন সৌদি সরকার।

পাশাপাশি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত এক হাজারের অধিক প্রবাসী বাংলাদেশি মৃত্যুবরণ করেছেন, আক্রান্ত হয়েছিলেন বিপুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশি। কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত স্থানীয়দের পাশাপাশি বৈধ-অবৈধ অভিবাসী নাগরিকদেরও সম্পূর্ণ বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান করেন সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আব্দুল আজিজ আল-সৌদ।

সভা শেষে রাষ্ট্রদূত দুদেশের অর্থনৈতিক ভিশন বাস্তবায়নে সৌদি আরবের স্বাস্থ্যখাতসহ বিভিন্ন সেক্টরের সাথে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।