চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উৎসবে ‘অজ্ঞাতনামা’র জয়জয়কার

মুক্তির পর পরই দেশে বিদেশে বিভিন্ন ফিল্ম ফেস্টিভালে প্রশংসার পাশাপাশি স্বীকৃতিও অর্জন করেছে ইমপ্রেস টেলিফিল্মের দর্শকপ্রিয় ছবি ‘অজ্ঞাতনামা’। আর এবার ‘বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উৎসব-২০১৭’-তেও সেরা চলচ্চিত্র ও সেরা নির্মাতার পুরস্কার অর্জন করার গৌরব অর্জন করল তৌকির আহমেদ পরিচালিত ছবিটি।

গেল ৬ অক্টোবর থেকে শুরু হয়েছিল বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উৎসব-২০১৭। টানা ১৬দিন বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে ৫টি বিভাগে ৪৪টি চলচ্চিত্র দেখানো হয়। দেশের সবগুলো জেলায় একযোগে প্রদর্শন করা হয় ছবিগুলো। আর এরমধ্যেই প্রতিযোগিতায় সবাইকে পেছনে ফেলে ইমপ্রেস টেলিফিল্মের ছবি ‘অজ্ঞাতনামা’র জয় করে নেয় জুুরিদের মন।

চলচ্চিত্র উৎসবটির সমাপনি দিন ছিল শনিবার। এদিন সন্ধ্যায় শিল্পকলা একাডেমিতে মোট ৩টি ক্যাটাগরিতে পুরস্কার ঘোষণা করা হয়। এরমধ্যে দুটিই জিতে নিয়েছে ইমপ্রেস টেলিফিল্মের ছবি অজ্ঞাতনামা। নির্বাহী প্রযোজক পরিচালক ইফতেখারুল চিশতিকে সঙ্গে নিয়ে পুরস্কার গ্রহণ করেন অজ্ঞাতনামার পরিচালক তৌকির আহমেদ। আর বিশেষ জুরি পুরস্কার জিতে নেয় রুবাইয়াত হোসেনের ছবি ‘আন্ডার কনস্ট্রাকশন’।

Advertisement

তিন পুরস্কারের মধ্যে দুই ক্যাটাগরিতেই পুরস্কার পেল অজ্ঞাতনামা, অনুভূতি কেমন জানতে চাইলে নির্মাতা তৌকির আহমেদ চ্যানেল আই অনলাইনকে জানান, স্বীকৃতি সব সমেয়ই আনন্দের। সমকালীন বিভাগে এ স্বীকৃতির জন্য উৎসব জুরীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা। যা নতুন সৃষ্টির জন্য আমাকে অনুপ্রাণিত করবে।

অন্যদিকে অনুষ্ঠানের সমাপনি দিনে শিল্পকলায় উপস্থিত ছিলেন মেধাবী নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী। এই চলচ্চিত্র উৎসব এবং বিজয়ী চলচ্চিত্রকে অভিনন্দন জানিয়ে তিনি বলেন, শিল্পকলা একাডেমির উদ্যোগে বাংলাদেশের ৬৪ জেলায় চলচ্চিত্র উৎসব হয়ে গেলো। সাম্প্রতিক কালের প্রতিনিধিত্বশীল প্রায় সব ছবিই দেখানো হলো। গত দুই বছরে বানানো এগারো ছবি নিয়ে প্রতিযোগিতা হলো, সেরা ছবি দুই লাখ টাকা প্রাইজমানি পেলো। সামনে সব জেলায় একাডেমির উদ্যোগে সিনেমা সেন্টার হচ্ছে যেখানে নিয়মিত স্ক্রিনিং হবে। ভাবা যায়? সত্যি সত্যি এই কাজগুলো হচ্ছে এবং এই স্বপ্নগুলো দেখছে শিল্পকলা একাডেমি। ব্রাভো, লিয়াকত আলি লাকী ভাই। আজকে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উৎসবের সমাপনী অনুষ্ঠানে গিয়ে এইসব জানলাম। সম্মানিত বোধ করেছি, সৈয়দ হাসান ইমাম এবং মসিহউদ্দিন শাকের ভাইয়ের সঙ্গে বিশেষ অতিথি হয়ে একই মঞ্চ ভাগ করে। শুভেচ্ছা বিজয়ী চলচ্চিত্র ‘অজ্ঞাতনামা’, শ্রেষ্ঠ পরিচালকের পুরস্কার জেতা তৌকির আহমেদ, এবং বিশেষ জুরি পুরস্কার জয়ী ‘আন্ডার কনস্ট্রাকশন’কে।

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উৎসবের সমাপনি অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী, চলচ্চিত্র নির্মাতা মসিহ্উদ্দিন শাকের, হাসান ইমাম প্রমুখ। সুস্থধারার চলচ্চিত্রের বিকাশ ঘটিয়ে দর্শকদের হলমুখী করতেই এ আয়োজন নিয়মিত চলতেই থাকবে বলে সমাপনি অনুষ্ঠানের বক্তব্যে জানান আয়োজকরা।