চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘বাংলাদেশের সঙ্গে বড় দলগুলো খেলতে চায় না’

জাপানের বিপক্ষে শেষ দুই মিনিটের দুই গোলে এক পয়েন্ট পাওয়ার সম্ভাবনাও হাতছাড়া হয়েছে বাংলাদেশের। ফুটবল হোক আর হকি, শেষ মুহূর্তে গোল খাওয়াটা যেন নিয়তি হয়ে পড়েছে। ধারাবাহিক এই চিত্র প্রমাণ করে, অভিজ্ঞতার সঙ্গে স্নায়ুকেও নিয়ন্ত্রণ করাটা কব্জায় আনতে পারেননি বাংলাদেশের খেলোয়াড়রা।

ম্যাচ পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে পর্যাপ্ত ম্যাচ খেলতে না পারার পাশাপাশি তাই স্নায়ু চাপকেও দোষ দিলেন বাংলাদেশ কোচ মাহবুব হারুন। সেখানে জাপান কোচ সিগফ্রিড আইকম্যানের মত, পর্যাপ্ত ম্যাচ খেলার সুবিধা পেলেই আলো ছড়াবে বাংলাদেশের বর্তমান দলটি।

এশিয়া কাপ হকির মত বড় আসরের আগে বাংলাদেশ প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে পেরেছে মাত্র দুটি। কোরিয়া, মালয়েশিয়া, ভারতের মত বড় দলগুলোর বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে চেয়েও সাড়া পায়নি হকি ফেডারেশন। কোচ মাহবুব হারুনের মতে বড় বড় দলগুলোর বিপক্ষে খেলতে না পারায় শেষ মুহূর্তে স্নায়ু চাপ সামলানোর দক্ষতা অর্জন করতে পারেননি তার শিষ্যরা।

Advertisement

‘আমরা কোরিয়া, মালয়েশিয়া, ভারতের মত দলগুলোর বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে চেয়েছিলাম। কিন্তু ছোট দল বলে তারা আমাদের সঙ্গে খেলতে চায়নি। যদি আমরা ম্যাচই না খেলতে পারি, তাহলে অভিজ্ঞতা কীভাবে হবে? ম্যাচের শেষ সময়গুলোতে মেজাজ ধরে রাখাটাও শেখা হচ্ছে না।’

বাংলাদেশ কোচ পাশে পাচ্ছেন জাপানী কোচ সিগফ্রিড আইকম্যানকেও। লাল-সবুজদের তরুণ দলটি পর্যাপ্ত ম্যাচ খেলার সুযোগ পেলে ভবিষ্যতে ভাল করবে বলে তার মত, ‘দেখুন এই দলটার বেশিরভাগ খেলোয়াড়রাই নবীন। ওরা যদি পর্যাপ্ত ম্যাচ খেলার সুযোগ পায়, তাহলে দারুণ খেলবে। তাদের দক্ষতা আছে, ভাল খেলার মানসিকতা আছে। শুধু অভিজ্ঞতাটা যোগ করতে হবে।’

বড় বড় দলগুলোর বিপক্ষে বাংলাদেশের প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে না পারাকে জাপান কোচ মানছেন বিব্রতকর হিসেবে, ‘এটা লজ্জাজনক যে বড় দলগুলো বাংলাদেশের সঙ্গে খেলতে চায় না। বাংলাদেশ এত কষ্ট করে একটা টুর্নামেন্ট আয়োজন করেছে। তাদের সঙ্গে তো সবার একটা করে ম্যাচ খেলা উচিত ছিল। ফেডারেশনকে আরও বেশি মনোযোগী হওয়া উচিত ছিল এই ক্ষেত্রে।’