চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বাঁচতে হলে মদের নেশা ছাড়তে হবে ম্যারাডোনাকে

জীবনকে আরও দীর্ঘায়ু করতে হলে পানাসক্তি ছাড়তে হবে ডিয়েগো ম্যারাডোনাকে, আর্জেন্টাইন কিংবদন্তির পরিবারকে এমন উপদেশই দিয়েছেন চিকিৎসকদের দলের একজন। মাত্রাতিরিক্ত মদ্যাসক্তির জন্য ম্যারাডোনাকে তিরস্কারও করেছেন চিকিৎসকরা।

মঙ্গলবার মস্তিষ্কে সফল অস্ত্রোপচার করা হয় ম্যারাডোনার। তার মস্তিষ্ক থেকে জমাট বাঁধা রক্তও অপসারণ করা হয়েছে। অস্ত্রোপচারের অবস্থা স্থিতিশীল আছে বটে তবে ভবিষ্যতে নিজের মদের প্রতি ভালোবাসা না কমালে যেকোনো সময় দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন চিকিৎসকরা।

বিজ্ঞাপন

‘তাকে মদের নেশা ছাড়তেই হবে, তার পরিবারের সদস্যরাও স্বীকার করেছেন যে ডিয়েগো এখন নিয়ন্ত্রণের বাইরে’, টিওয়াসি স্পোর্টসে এভাবেই হুঁশিয়ারি দিয়েছেন চিকিৎসক আলফ্রেডো কাহে।

বিজ্ঞাপন

‘তার যকৃতে সমস্যা আছে, ফুসফুসে সমস্যা আছে। শুধু যে মস্তিষ্কেই সমস্যা আছে তাই নয়, তার পাকস্থলি-যকৃৎ সব কিছুতেই সমস্যা আছে। সবকিছু জট পাকিয়ে আছে। আমরা ডিয়েগোকে সেরে তোলার চেষ্টা করছি, বাকিটা দেখা যাক। তিনি এখনও ঝুঁকিমুক্ত নন।’

বুয়েন্স আয়ার্সের এক ক্লিনিকে অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয় ১৯৮৬ বিশ্বকাপজয়ী ম্যারাডোনার। ঝুঁকি থাকা সত্ত্বেও বাড়ি যাওয়ার জন্য অস্থির হয়ে উঠেছেন ৬০ বছর বয়সী কিংবদন্তি। এ অবস্থায় তাকে মোটেও বাড়ি যেতে দিতে রাজী নন এক দশক ধরে ম্যারাডোনার চিকিৎসার দায়িত্বে থাকা কাহে।

‘ম্যারাডোনার ভবিষ্যৎ নিয়ে আমার খটকা লাগছে। আমি উদ্বিগ্ন। তাকে কোনোভাবেই যেতে দেওয়া উচিৎ হবে না। তাকে এমন জায়গায় রাখতে হবে যেখানে রেখে তাকে স্থায়ীভাবে চিকিৎসা দেওয়া যায়।’