চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বলিউডে সুখ্যাতি ছড়াচ্ছেন রাজকুমার

মানুষের পছন্দের বৈপ্লবিক পরিবর্তন ঘটতে দেখা যাচ্ছে বলিউডে! এখন শুধু আর স্টারডম ইমেজ নয়, চরিত্রাভিনেতাদেরও পছন্দ করতে শুরু করেছেন মানুষ। সেই হিসেবে যে ক’জন অভিনেতাদের লোকে পছন্দ করেন, তাদের মধ্যে অন্যতম একজন রাজকুমার রাও।

প্রতিনিয়ত তার কাজ প্রশংসা পাচ্ছে দর্শক এবং সমালোচক মহলে। আছে অগণিত ভক্তও। তবে সম্প্রতি তার প্রশংসায় মুখরিত হলেন জাতীয় পুরষ্কারপ্রাপ্ত চলচ্চিত্র নির্মাতা হংসল মেহতা। যদিওবা এই হংসল মেহতার হাত ধরেই সাফল্যের সিঁড়িতে পা বাড়িয়েছিলেন ‘স্ত্রী’ খ্যাত এই তারকা।

রাজকুমার রাওয়ের অভিনয়ের বিবর্তনের কথা উল্লেখ করতে গিয়ে হংসল মেহতা একটি সাক্ষাতকারে জানান যে, ‘রাজকুমার রাওয়ের সব থেকে বড় গুণ হল তার অভিনবতা এবং উদারতা। যেটিকে সব সময় ধারণ করেন তিনি। তিনি অভিনয় শুরুর প্রথম দিকে যেমনটা ছিলেন, ঠিক এখনো তেমনটাই। কোন পরিবর্তন নেই তার। যা শুধু বদলেছে, তা হলো তার জনপ্রিয় ক্রমাগত বেড়েই চলেছে।’

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, রাজকুমারের এই সাফল্য আমাকে আনন্দিত করে এবং আমি নিজেকে একজন সুখী অভিভাবকের মতো বোধ করি।

এদিকে ওটিটি প্লাটফর্মে মুক্তি পেয়েছে হংসল মেহতা পরিচালিত সর্বশেষ ছবি ‘ছালাং’। এই ছবিতেও দেখা গেছে রাজকুমার রাওকে। বরাবরের মত এই ছবিতেও তার অভিনয় মুগ্ধ করেছে দর্শকদের।

২০১০ সালে ‘লাভ সেক্স অর ধোকা’ সিনেমাতে অভিনয়ের মাধ্যমে আত্মপ্রকাশ করেছিলেন রাজকুমার রাও। তবে ২০১৩ সালে হংসল মেহতার ‘শহীদ’ ছবিটির মাধ্যমে নজর কাড়েন সবার। এরপর এই নির্মাতার পরিচালনায় সিটি লাইটস, আলীগড়, বোস: ডেড/আলাইভ, ওমরতা এবং ‘ছালাং’ এ সাথে কাজ করেছেন তারা।

বিজ্ঞাপন