চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বর্তমান পরিস্থিতে মোটেও শুটিংয়ের পক্ষে নন সিয়াম

করোনাভাইরাসের প্রকোপে প্রায় আড়াই মাস পর ফের শুটিংয়ের অনুমতি দিয়েছে এফডিসি ও চলচ্চিত্রের বিভিন্ন সংগঠন। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, শর্ত মেনে এবং শুটিংয়ের আগে করোনা টেস্ট করে যে কোনো ইউনিট শুটিং করতে পারবে!

তবে বর্তমান পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে এখনই শুটিংয়ের পক্ষে নন চলচ্চিত্রের এ সময়ের ব্যস্ত নায়ক সিয়াম আহমেদ।

শুটিংয়ে ফেরা প্রসঙ্গে চ্যানেল আই অনলাইনের সঙ্গে আলাপে ‘ফাগুন হাওয়ায়’ ছবির এ অভিনেতা তার মতামত জানিয়ে বললেন, চারপাশে ধীরে ধীরে করোনা সংক্রমণ বাড়ছে। এ অবস্থায় আমি শুটিংয়ের পক্ষে নই। সুস্থভাবে বেঁচে থাকলে আগামীতে অনেক কাজ করা যাবে।

এ ক্ষেত্রে নিজের সুরক্ষার পাশাপাশি সিয়াম পরিবারের সুরক্ষার কথা টেনে বললেন, শুটিং থেকে বাসায় ফিরলে পরিবারের সদস্যরা কতোটা নিরাপদে থাকবেন সেটাও বিবেচনা করতে হবে। কারণ সিনেমার শুটিং মানেই অনেক মানুষের আনাগোনা। বিভিন্নজন বিভিন্ন জায়গা থেকে আসবে। কার মধ্যে কী থাকবে সেটা করোনা টেস্ট করলেও পরে ঝুঁকিতে থাকার সম্ভবনা থাকবে। চাইবো না আমার জন্য পরিবার বিপদে পড়ুক।

তিনি বলেন, প্রোডাকশন বয় চা দেবে, ইউনিটের মানুষরা একসাথে খাবার খাবে, মেকআপম্যান সংস্পর্শে আসবে; এছাড়া বিভিন্নভাবে ক্রাউড হবেই। এতে করে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা সম্ভব হবে না। তাই যতই সচেতন থাকি না কেন সবকিছুর মধ্যে একটা ঝুঁকি কাজ করবে। এতে সঠিকভাবে কাজ করা সম্ভব হবে না। তাই এ অবস্থায় আমি শুটিং করতে চাইনা।

শোনা যাচ্ছিল, সেলেব্রেটি প্রোডাকশনের ব্যানারে তিন নির্মাতা দীপঙ্কর দীপন, অনন্য মামুন ও সৈকত নাসিরের একসঙ্গে নির্মিত সিনেমা ‘ত্রিভুজ’-এ অভিনয় করবেন সিয়াম! চলতি সপ্তাহেই এ ছবির শুটিং শুরুর কথা।

সেখানে সিয়াম কাজ করবেন কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ নিয়ে আমার সঙ্গে কারও কোনো কথা হয়নি। যোগ করে তিনি জানান, হাতে জমে থাকা অনেকগুলো কাজ রয়েছে। করোনা পরিস্থিতি অনুকূলে না আসা পর্যন্ত তিনি শুটিং ফিরবেন না।

এদিকে ৫ জুন থেকে ফের শুটিংয়ের অনুমতি প্রদানের পর পরিচালক সমিতির সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজার চ্যানেল আই অনলাইনকে বললেন, করোনা পরীক্ষা করে রিপোর্ট নেগেটিভ নিয়েই শুটিং করা যাবে। তবে শুটিং থেকে করোনা আক্রান্ত হলে তার দায়ভার নিতে হবে ওই শুটিংয়ে পরিচালক ও প্রযোজককে।

শেয়ার করুন: