চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ফেসবুক নিয়ে সতর্ক কুসুম শিকদার

এরআগেও একবার হ্যাকড হয়েছিলো কুসুম শিকদারের ফেসবুক আইডি

তারকাদের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয়ে যাওয়ার ঘটনা নতুন কিছু নয়। এইতো ক’দিন আগেই কণ্ঠশিল্পী কনকচাঁপাও হ্যাকারদের টার্গেটে পরিনত হয়েছিলেন। এবার হ্যাকারদের টার্গেটে পরিনত হয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার জয়ী অভিনেত্রী কুসুম শিকদার। অন্তত চ্যানেল আই অনলাইনের সাথে এমন আশঙ্কার কথাই জানালেন ‘শঙ্খচিল’ খ্যাত এই অভিনেত্রী।

ভার্চুয়াল সময়ে যে কারো কাছেই খুব গুরুত্বপূর্ণ ফেসবুক। ভক্ত অনুরাগীদের কাছে এটি যেমন তারকাদের মুখপাত্র হিসেবে কাজ করে, তেমনি এতে থাকে ব্যক্তিগত নানা তথ্য উপাত্তও। আর সেই মিডিয়ামটি যখন অবৈধ উপায়ে অন্যকেউ নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেন, তখন কেমন লাগবে! আর এমন পরিস্থিতি বুঝতে পেরে আগে থেকেই নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টটি সুরক্ষা রাখতে কে না পদক্ষেপ নিবেন!

অভিনেত্রী কুসুম শিকদারও হ্যাকারদের গতিবিধি বুঝেই নিজের ফেসবুক আইডিটি ডিঅ্যাক্টিভেট করেছেন। এ বিষয়ে চ্যানেল আই অনলাইনকে তিনি বলেন, গত সাত আটদিন ধরে আমার অ্যাকাউন্টটা কেউ হ্যাক করতে চাইছে। আর সেটা বুঝতে পেরে আমি আমার অ্যাকাউন্টটি ডিঅ্যাক্টিভেট করেছি। কিন্তু তাতেও খুব একটা ফল হচ্ছে না। প্রতিদিন বেশ কয়েকটি ইমেইল আসছে আমার কাছে যে, কেউ অ্যাকাউন্টটি হ্যাক করতে চাইছে।

Advertisement

এরআগেও একবার হ্যাকারদের কবলে পরেছিলেন জানিয়ে কুসুম শিকদার বলেন, এবারই প্রথম নয়, এর আগেও আমার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাকড হয়েছিলো। তখন আমার আইডি থেকে অনেক রাজনীতি ও ধর্মীয় বিষয় নিয়ে আজেবাজে কথা ছড়ানো হচ্ছিলো। বাজে মন্তব্য করা হয়েছিলো। এমনকি আমার আইডি থেকে অশ্লীল পোস্টও করা হয়। এসব দেখে সবাই অবাক হয়ে আমাকে ফোন করে বিষয়টি জানায়। এরপর তখন আমি সবাইকে সতর্ক করি যে এসব পোস্ট বা মন্তব্য আমি করছি না। আমার আইডিটি কে বা কারা হ্যাকড করেছে। ফেসবুক থেকে সেই আইডিটি বন্ধ করে দেয়া হয়।

আগের বারের মতো সবাইকে সতর্ক করে কুসুম শিকদার বলেন, আগের আইডি বন্ধের পর ফেসবুকে নতুন আইডি ওপেন করেছিলাম। কিন্তু এটাও আক্রান্ত হচ্ছে। হয়তো আগেরবার যারা হ্যাকড করেছে, এবারও তারাই চেষ্টা করছে। যদিও আমার বর্তমান অ্যাকাউন্টটি ডিঅ্যাক্টিভেটেড, তবু যদি কোনোভাবে আমার এই অ্যাকাউন্টটি হ্যাকড হয় তাহলে সবাই সতর্ক থাকবেন। আমার ভক্ত, অনুরাগী ও শুভাকাঙ্ক্ষিরা যেন আমাকে ভুল না বুঝেন সেজন্য আমি আগে থেকেই সবাইকে সতর্ক করছি।

বড় পর্দার প্রিয়মুখ অভিনেত্রী কুসুম শিকদার। ২০১০ সালে ‘গহীনে শব্দ’ ছবির মধ্য দিয়ে চলচ্চিত্রে তার অভিষেক। শুরু থেকেই চরিত্রাভিনেত্রী হিসেবে প্রশংসা পেয়েছেন তিনি। এরপর করেছেন ‘লাল টিপ’। এ ছবিটিও বেশ প্রশংসা অর্জন করে। এই ছবির জন্য কুসুম জিতে নেন মেরিল-প্রথম আলোর শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীর পুরস্কার। সর্বশেষ তিনি ইমপ্রেস টেলিফিল্মের ছবি ‘শঙ্খচিল’-এ কাজ করেছেন ভারত বর্ষের মেধাবী নির্মাতা গৌতম ঘোষের পরিচালনায়। ছবিটি মুক্তির পরে দেশে বিদেশে সুনাম অর্জন করে। শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র হিসেবে জিতে নেয় ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারও। আর এই সিনেমার হাত ধরেই প্রথমবার শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন তিনি।