চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ফুলজোড় নদীতে খাঁচায় মাছ চাষে ভাগ্য পরিবর্তন

সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জে ফুলজোড় নদীতে প্রথমবারের মতো শুরু হয়েছে খাচাঁয় মাছ চাষ। প্রতি খাচাঁয় চাষীদের লাভ থাকছে প্রায় এক লাখ টাকা। মাছ চাষে সহযোগিতা দিচ্ছে স্থানীয় মৎস্য বিভাগ।

রায়গঞ্জ উপজেলায় ফুলজোড় নদীতে খাচাঁয় মাছ চাষ করে ভাগ্য ফিরতে শুরু করেছে এলাকার অনেক মৎস্যজীবীর। মৎস্য বিভাগ থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে প্রথম দিকে ১৪টি খাঁচা তৈরী করে চাষীরা শুরু করে মাছ চাষ। এখন তাদের খাঁচার সংখ্যা ৪৭টি। প্রথম দফায় প্রতিটি খাঁচা থেকে প্রায় ৫০ হাজার টাকা লাভ করছেন তারা।  

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

খাঁচায় মাছ চাষ করা স্থানীয় মৎস্যজীবীরা বলেন, রায়গঞ্জের মৎস কর্মকর্তা মহোদয়দের সহযোগিতায় ট্রেনিং নিয়ে এই পদ্ধতিতে মাছ চাষে আসি। চাকরীর চেয়ে ভালো উপার্জনের কারণে মাছ চাষেই নিয়োজিত হওয়ার কথা জানান একজন।

দিনে দিনে এ অঞ্চলে বাড়ছে খাঁচায় মাছ চাষের পরিধি।  মৎস্যজীবীরা বলেন, সরকারের পক্ষ থেকে যদি আমাদের অল্প সুদ হারে ঋণ দেয় তাহলে আমরা আরও অনেক করতে পারবো। বছরে দুইটি শিফট করা যাবে এবং এথেকে ৪৫-৪৬ লক্ষ টাকা আয় করা সম্ভব বলে জানান একজন।

মৎস্যজীবীদের সব ধরনের সহযোগিতা দিচ্ছে স্থানীয় মৎস্য বিভাগ। জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মনিরুল ইসলাম বলেন, খাঁচায় মাছ চাষের সুবিধা হলো এতে রোগ কম, অক্সিজেনের অভাব হয় না। অল্প জায়গায় অল্প বিনিয়োগ করে বেশি লাভ করা যায়। এখানে একটি খাঁচায় ১ লাখ টাকা দুই শিফটে লাভ পাচ্ছে তারা। অনেক যুবকই খাঁচায় মাছ চাষে উৎসাহিত হচ্ছে।