চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘ফুটবলে ফেভারিট বলে কিছু হয় না’

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে শেষ আটের ড্র হতে না হতেই শুরু হয়ে গেল দুই ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের বাগযুদ্ধ। লিভারপুলের কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপ বলেছেন, লিভারপুলের বিরুদ্ধে খেলতে হচ্ছে বলে ম্যানচেস্টার সিটি নিশ্চয়ই খুশি হতে পারেনি। ক্লপ এও বলছেন, তিনি নিশ্চিত যে, পেপ গার্দিওলার দল তাদের সামনে পড়ে উদ্বেগে দিন কাটাবে।

ইপিএলে এবার লিভারপুলের বিরুদ্ধে গত সেপ্টেম্বরে ৫-০তে জিতেছিল গার্দিওলার দল। যাদের এবারের সেরা ক্লাব মনে করা হচ্ছে ইপিএলে। কার্যত লিগ জয়ও নিশ্চিত করে ফেলেছে তারা।

শুধু শিরোপা জেতা প্রায় নিশ্চিত করে ফেলা নয়, গার্দিওলার দর্শনীয় ফুটবল মন জিতে নিয়েছে ইংল্যান্ডের ফুটবলপ্রেমীদেরও। তবে লিভারপুলকে গত সেপ্টেম্বরে চূর্ণ করলেও তারাই একমাত্র দল যাদের মাঠে গিয়ে এই মৌসুমে হেরেছে সিটি।

গত ১৪ জানুয়ারি সেই হার হজম করে তারা। রুদ্ধশ্বাস সেই ম্যাচে ক্লপের লিভারপুল ৪-১ এগিয়ে ছিল। তারপর ম্যাচে ফিরে আসার মরিয়া চেষ্টা করে সিটি। দুর্ধর্ষ লড়াই শেষ হয় লিভারপুলের পক্ষে ৪-৩ ফলে।

Advertisement

ক্লপের মনে হচ্ছে, সেই ম্যাচের স্মৃতিই চিন্তায় রাখবে গার্দিওলার দলকে। অ্যানফিল্ডে প্রথম লেগ হবে ৪ এপ্রিল। সেখানে ভাল কিছুরই আশা করছেন লিভারপুল ম্যানেজার। ক্লাবের ওয়েবসাইটকে দেয়া সাক্ষাতকারে তিনি বলেছেন, ‘এই মৌসুমে তারা একবার জিতেছে, আমরাও একবার জিতেছি। আমার মনে হয় না, ড্রয়ের আগে তারা চেয়েছিল লিভারপুলের সামনে পড়তে।’

ম্যানসিটি ম্যানেজার গার্দিওলার মুখ থেকে এখন পর্যন্ত পাল্টা কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে সিটিজেনদের তারকা ফুটবলার লেরয় সানে বলেছেন, গার্দিওলা তার ফুটবল জ্ঞান ও দর্শন দিয়ে তাদের চ্যাম্পিয়ন্স লিগের অন্যতম দাবিদার করে তুলেছেন।

শুধু সানে নয়, অনেক ফুটবল বিশেষজ্ঞও মানছেন, এবারে গার্দিওলা যে রকম ফুটবল খেলাচ্ছেন ম্যানসিটিকে, তা অতীতের বার্সেলোনাকে মনে করিয়ে দিতে পারে। যদিও সবাই একমত, সেই বার্সেলোনা আর এই ম্যানসিটির মধ্যে বড় তফাত হচ্ছে, একটা দলের লিওনেল মেসি ছিল। অন্যটার নেই।

ক্লপ যদিও মনস্তাত্ত্বিক লড়াই চালু করে দিতে দেরি করেননি। বলেছেন, ‘আমরা হয়তো এই রাউন্ডে ফেভারিট নই। কিন্তু শেষ আটের লড়াইয়ে ফুটবলে ফেভারিট বলে কিছু হয়ও না। ধন্যবাদ, খেলাটার নাম ফুটবল যেখানে কোনো কিছু আগে থেকে ঠিক হয় না।’

ম্যানসিটির বিরুদ্ধে খেলতে কেমন লাগবে আপনার? এমন প্রশ্নে ক্লপের উত্তর, ‘চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ড্র সব সময়ই উত্তেজনার এবং মজারও। অনেক সময়ই দেখা যায়, প্রতিবেশীর সঙ্গে ম্যাচ পড়ছে। সত্যি কথা বলতে কী, আমার কোনো সমস্যা নেই ম্যানসিটির সামনে পড়েছি বলে। আমরা যাকেই সামনে পাব, ঠিক আছে। এবারের লড়াই ম্যানসিটি তো চলো, সবাই ঝাঁপাই।’