চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ফার্মেসীসহ নিত্যপণ্যের দোকানে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান

টাঙ্গাইলে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করে অতিরিক্ত মূল্যে হ্যান্ড স্যানিটাইজার, গ্লাভস, মেয়াদোর্ত্তীণ ও রেজিস্ট্রেশনবিহীন ওষুধ বিক্রির অপরাধে ৮টি ফার্মেসীকে ১ লক্ষ ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমান আদালত। এছাড়া জেলার ধনবাড়িতে দুটি মনোহরীর দোকান ও একটি সবজির দোকানে অভিযান চালিয়ে ১৬ হাজার ৫শ’ টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালতে।

বুধবার দুপুর থেকে বিকেল পর্যন্ত টাঙ্গাইল র‌্যাব-১২ সিপিসি ৩ এর কোম্পানী কমান্ডার মেজর আবু নাঈম মোহাম্মদ তালাতের নেতৃত্বে শহরের সাবালিয়া এলাকায় অভিযান পরিচালনা শেষে এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট তাপস পাল এ অর্থদণ্ডাদেশ দেন। পরে মেয়াদ উর্ত্তীণ ও রেজিস্ট্রেশনবিহীন ওষুধ ধ্বংস করা হয়।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

টাঙ্গাইল র‌্যাব-১২ সিপিসি ৩ এর কোম্পানী কমান্ডার মেজর আবু নাঈম মোহাম্মদ তালাত বলেন: করোনা প্রতিরোধক হ্যান্ড স্যানিটাইজার, হাতের গ্লাভস অতিরিক্ত মূল্যে বিক্রি করছিলো এমন সংবাদের ভিত্তিতে টাঙ্গাইল শহরের সাবালিয়া এলাকায় ৮টি ফার্র্মেসীতে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় ফার্মেসীগুলো থেকে মেয়াদ উর্ত্তীণ ও রেজিস্ট্রেশনবিহীন ওষুধ পাওয়া যায়। ফলে রাফি মেডিক্যালকে ২০ হাজার, রাজীব মেডিক্যালকে ১০ হাজার, সেবা মেডিক্যালকে ১৫ হাজার, অনিক মেডিক্যালকে ৫ হাজার, রাজধানী মেডিক্যালকে ২০ হাজার, শ্রাবন মেডিক্যালকে ৪০ হাজার, শাহ আলম মেডিক্যালকে ২৫ হাজার এবং মা মেডিক্যালকে ৫ হাজার টাকা আর্থিক জরিমানা করা হয়। সেই সাথে ফার্মেসী মালিকদেরকে সর্তক করা হয়।

বিজ্ঞাপন

এসময় উপস্থিত ছিলেন র‌্যাব-১২ এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শফিকুর রহমান, টাঙ্গাইল ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক ডা. নারগিস আক্তার প্রমুখ।

অন্যদিকে জেলার ধনবাড়ী কাচাবাজারে পেয়াজ, রসুন ও সবজির দাম বেশি রাখায় দু’টি দোকান ও একটি সবজির দোকানে অভিযান চালিয়ে ১৬হাজার ৫শতটাকা জরিমানা করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আরিফা সিদ্দিকা।