চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ফারুকীর দ্বিতীয় ইংরেজি ছবি ‘এ বার্নিং কোয়েশ্চেন’

‘নো ল্যান্ডস ম্যান’-এর পর মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর আন্তর্জাতিক ভাষায় নির্মিতব্য দ্বিতীয় ছবি ‘এ বার্নিং কোয়েশ্চেন’…

মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর তারকাবহুল প্রথম আন্তর্জাতিক সিনেমা ‘নো ল্যান্ডস ম্যান’ । গেল নভেম্বর ও ডিসেম্বরে এই চলচ্চিত্রের ৭০ ভাগ শুটিং সম্পন্ন হয়েছে নিউ ইয়র্কে। বাকি অংশের চিত্রায়ণ হয়েছে অস্ট্রেলিয়া ও ভারতে। চলছে ছবির পোস্ট প্রোডাকশনের কাজ। আর এরমধ্যেই এলো আরো একটি আন্তর্জাতিক ভাষার ছবির ঘোষণা! ছবির নাম ‘এ বার্নিং কোয়েশ্চেন’।

তবে ফারুকীর এই ছবির ঘোষণা এসেছে ‘এশিয়ান প্রজেক্ট মার্কেট’ থেকে। সোমবার তাদের ওয়েব সাইটে চলতি বছরের নির্বাচিত ২০টি ছবির নাম ঘোষণা করে। সেখানেই দেখা যায় ফারুকী পরিচালিত ‘এ বার্নিং কোয়েশ্চেন’ এর নাম।

বিজ্ঞাপন

বিষয়টি নিয়ে চ্যানেল আই অনলাইনের সাথে কথা বলেন ফারুকী। তিনি জানান, ‘এশিয়ান প্রজেক্ট মার্কেট’ এর মধ্য দিয়েই আমার দ্বিতীয় ইংরেজি ভাষার ছবিটি ‘এ বার্নিং কোয়েশ্চেন’ এর যাত্রা শুরু হলো।

বিজ্ঞাপন

নতুন এই ছবিটির পুরো আয়োজন, ভাষা, গল্প- সবই আমেরিকার। এ নিয়ে ফারুকী আরো বলেন, ইংরেজি ভাষায় নির্মিতব্য এটি আমার দ্বিতীয় ছবি, যার সমস্ত আয়োজনই হবে আমেরিকায়। ভাষা এবং গল্পের সেটিংও আমেরিকান। যে ছবিটি মেইনস্ট্রিম আমেরিকান বিষয় ডিল করবে।

তিনি বলেন, প্রযোজক হিসেবে ‘এ বার্নিং কোয়েশ্চেন’ এর সাথে আপাতত আমি, নুসরাত ইমরোজ তিশা ও আমেরিকান প্রযোজক শ্রীহরি সাঠে রয়েছি। সামনে আরো কেউ কেউ যুক্ত হবেন।

ইংরেজি ভাষার এই ছবি নিয়ে আগামিতে ইউরোপ কিংবা অন্যান্য ফিল্ম মার্কেটে যাওয়ার ইচ্ছে রয়েছে কিনা জানতে চাইলে ফারুকী বলেন, ইচ্ছে আছে। আপাতত ছবিটি লঞ্চ করলাম। আসতে আসতে ছবির কাজ এগুবে।

‘নো ল্যান্ডস ম্যান’ দিয়েই ফারুকীর চমকের শুরু। এই ছবিতে কাজ করছেন নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকী, তাহসান খানসহ অস্ট্রেলিয়ান অভিনেত্রী মেগান মিশেল। সর্বশেষ ভারতীয় সংগীত পরিচালক এ আর রহমানকে যুক্ত করেও যথেষ্ট চমক দেখিয়েছেন তিনি। এই ছবিতে সহপ্রযোজক হিসেবে আছেন নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকী, ইমপ্রেস টেলিফিল্ম, স্কয়ার গ্রুপের অঞ্জন চৌধুরী, নুসরাত ইমরোজ তিশা, আমেরিকান প্রযোজক শ্রীহরি সাঠে ও বঙ্গবিডি।

এদিকে বছর দেড়েক আগেই ‘শনিবার বিকেল’ নামের একটি ছবির কাজ শেষ করলেও সেন্সর বোর্ড ছবিটি মুক্তির অনুমতি দেয়নি।