চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

প্রেমের প্রস্তাব ফিরিয়ে দেয়ায় শিক্ষকের গুলিতে ছাত্রীর মৃত্যু

প্রেমের প্রস্তাব ফিরিয়ে দেয়ার ‘অপরাধে’ নিজ স্কুলের সাবেক শিক্ষকের গুলিতে জীবন দিতে হয়েছে অষ্টম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে।

ভারতের লখনৌ রাজ্যের কানপুর দেহাত জেলায় বৃহস্পতিবার এ ঘটনা ঘটে।

বিজ্ঞাপন

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস জানিয়েছে, কয়েক মাস আগে ওই শিক্ষার্থী স্কুলের প্রিন্সিপালের কাছে অভিযোগ করেছিলেন, অভিযুক্ত শিক্ষক ২৫ বছর বয়সী শৈলেন্দ্র সিং রাস্তাঘাটে তার পিছু নেন এবং যেখানে সেখানে পথ আটকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে তাতে রাজি হতে জোর করেন।

ওই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে তদন্ত করে দু’মাস পর শৈলেন্দ্রকে স্কুল থেকে বহিষ্কার করা হয়।

বিজ্ঞাপন

কানপুর দেহাত থানার এসপি অনুরাগ ভাটস জানান, বহিষ্কৃত হওয়ার পরও নানা সময় বারবার শৈলেন্দ্র ১৫ বছর বয়সী ওই কিশোরীর পিছু নিতেন এবং প্রেম নিবেদন করে, ভয় দেখিয়ে হয়রানি করতেন। কিন্তু প্রতিবারই প্রত্যাখ্যাত হতে হয়েছে তাকে।

তিনি বলেন, ‘শৈলেন্দ্র তাকে বৃহস্পতিবার সকালে গুলি করে এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সন্ধ্যায় মারা যায় মেয়েটি। আমরা ওই শিক্ষক এবং তার সঙ্গে থাকা অজ্ঞাত আরেক ব্যক্তির বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেছি।’

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, ঘটনার দিন ওই স্কুলছাত্রীর সঙ্গে তার আরেক সহপাঠী ছিলেন। ওই ছাত্রীই ঘটনার একমাত্র প্রত্যক্ষদর্শী। তারা একসঙ্গে রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় শৈলেন্দ্র মোটরসাইকেলে করে তাদের পথরোধ করেন। তার সঙ্গে মোটরসাইকেলে আরেকজন লোক ছিল।

সাবেক ওই শিক্ষক তাদেরকে থামিয়ে মেয়েটির সঙ্গে আবারও প্রেমের সম্পর্ক নিয়ে কথা বলা শুরু করেন। এর কয়েক মিনিটের মাথায়ই তিনি অস্ত্র বের করে মেয়েটির ঘাড়ে গুলি করে বাইক চালিয়ে পালিয়ে যান।

পুলিশ আসামি শৈলেন্দ্র ও তার সঙ্গীকে ধরার চেষ্টা করছে। ঘটনার পর থেকেই তারা পলাতক।

Bellow Post-Green View