চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

প্রাথমিক দল নিয়ে শ্রীলঙ্কায় যাবে বাংলাদেশ

তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে ২০-২২ জনের প্রাথমিক দল নিয়ে শ্রীলঙ্কা সফরে যাবে বাংলাদেশ। সেখানে টাইগারদের হাই-পারফরম্যান্স (এইচপি) দলের সঙ্গে তিনটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার পর টেস্ট স্কোয়াড ঘোষণা করবে বিসিবি। প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু জানিয়েছেন, ১৫ সদস্যের দল চূড়ান্ত করা হবে লঙ্কায় হওয়া ক্যাম্প থেকে।

সেপ্টেম্বরের শেষদিকে শ্রীলঙ্কায় যাবে জাতীয় ও এইচপি দল। ২৪ অক্টোবর শুরু হতে পারে স্বাগতিকদের বিপক্ষে প্রথম টেস্ট। তার আগে সেখানে প্রায় ২৫ দিনের ক্যাম্প করার সুযোগ পাবেন মুমিনুল হকরা। মিনহাজুল জানালেন, অভিজ্ঞতার সঙ্গে ক্যাম্পের সার্বিক দিক বিবেচনা করেই মূল স্কোয়াড চূড়ান্ত করা হবে।

বিজ্ঞাপন

‘সবশেষ ফেব্রুয়ারিতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ঘরের মাঠে টেস্ট ম্যাচ খেলেছিলাম আমরা। অনেকদিন খেলা নেই। অনুশীলনের মধ্যেও নেই। তারপরও অভিজ্ঞতাকে আমরা গুরুত্ব দিচ্ছি। শ্রীলঙ্কায় গিয়ে বেশ কয়েকটা অনুশীলন ম্যাচ আছে। সবকিছু মিলিয়ে ওখানে গিয়েই চূড়ান্ত স্কোয়াড ঘোষণা করব। প্রাথমিক দল শ্রীলঙ্কায় যাবে।’

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

‘ওখানকার ট্রেনিং সেশন খুব গুরুত্বপূর্ণ। কেননা পাঁচ মাস সবার জন্যই দীর্ঘ বিরতি গেছে। কে কতটা তাড়াতাড়ি রিকভারি করে মানসিকভাবে কতটুকু মানিয়ে নিতে পারছে, সব দেখা হবে। ২০-২২ জনের মতো খেলোয়াড় নিয়ে যাচ্ছি। সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহে আমরা দল তৈরি করব। তারপর শ্রীলঙ্কায় গিয়ে ১৫ জন ঠিক করব। ৩৮ জনের পুল আছে, সবাইকেই কোভিড টেস্ট করানো হবে। ব্যাকআপ হিসেবে তৈরি রাখবো। সাথে সাথে ২৪ জনের এইচপি স্কোয়াড ওখানে যাবে। যাকে যখনই দরকার হবে, যেন যোগান দেয়া যায়।’

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজ দিয়ে করোনা বিরতি পরবর্তী আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরবে বাংলাদেশ। তিন টেস্ট খেলতে সেপ্টেম্বরের শেষদিকে কলম্বোর বিমানে ওঠার কথা তামিম-মুশফিক-মুমিনুলদের। তার আগে তিনবার করোনা পরীক্ষা দিতে হবে। আনুষ্ঠানিক ক্যাম্প শুরুর আগে প্রথমবার নেয়া হবে টাইগারদের কোভিড টেস্ট।

বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের প্রধান আকরাম খান জানিয়েছেন, ১৮ সেপ্টেম্বর খেলোয়াড়দের বাসায় গিয়ে নমুনা সংগ্রহ করা হবে। যারা নেগেটিভ হবেন, তাদের তোলা হবে পাঁচ তারকা হোটেলে। তার পরপরই শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে শুরু হবে দলীয় অনুশীলন।