চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

প্রভাসের ‘সাহো’র মুখোমুখি বলিউডের দুই ছবি?

বলিউড ইন্ডাস্ট্রির না হলেও পুরো ভারতবর্ষে তুমুল জনপ্রিয় একটি নাম ‘বাহুবলী’ খ্যাত তারকা অভিনেতা প্রভাস। ভারতীয় দক্ষিণী এই অভিনেতা এবার আরো দাপট নিয়ে আসছেন। আর তার মুখোমুখি বলিউডের সুপারস্টার অক্ষয় ও অ্যাকশান হিরো জন আব্রাহাম!

হ্যাঁ, ‘বাহুবলী’র পর ফের বিগ বাজেটের ছবি নিয়ে আসছেন প্রভাস। ছবির নাম ‘সাহো’। ইতোমধ্যে ছবিটি পুরো ভারতবর্ষে ব্যাপক আগ্রহের সৃষ্টি করেছে। কিন্তু ঝামেলা হলো, এই ছবিটি যেদিন মুক্তি পাওয়ার তারিখ চূড়ান্ত করা হয়েছে একই দিনে ভারতীয় প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি চূড়ান্ত হয়েছে বলিউডের দুই ছবি।

ভারতের আসন্ন স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষ্যে ১৫ আগস্ট প্রেক্ষাগৃহ দখলের লড়াইয়ে ইতোমধ্যে শোনা যাচ্ছে তিনটি ছবির নাম। প্রভাসের ‘সাহো’ ছাড়াও এদিন মুক্তির কথা শোনা যাচ্ছে অক্ষয় কুমার অভিনীত ‘মিশন মঙ্গল’ এবং জন আব্রহাম অভিনীত ‘বাটলা হাউজ’।

এই হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে উৎসুক সিনেমা বিশ্লেষক থেকে শুরু করে দর্শকরাও। কিন্তু এরইমধ্যে পরশু খবর ছড়িয়ে যায় যে, পিছিয়ে যেতে পারে প্রভাসের ‘সাহো’ মুক্তির তারিখ। গুঞ্জন উঠে ১৫ আগস্টের পরিবর্তে ‘সাহো’ মুক্তি পেতে পারে আগামী ৩০আগস্ট। ফলে বিগ বাজেটের ছবি ‘সাহো’র মুখোমুখি অক্ষয়ের ‘মিশন মঙ্গল’ ও জনের ‘বাটলা হাউজ’ হবে কিনা তা নিয়ে সন্ধিহান সবাই।

বিজ্ঞাপন

তবে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম স্পটবয়.কম বলছে, ‘সাহো’র বিশেষ একটি সূত্রের মাধ্যমে জানা গেছে এই ছবিটি মুক্তির তারিখ কোনোভাবে পরিবর্তন হবে না। ফলে বোঝাই যাচ্ছে চলতি বছর বলিউডের সবথেকে বড় লড়াই দেখবে দর্শকবৃন্দরা।

সর্বশেষ ব্লকবাস্টার সিনেমা ‘বাহুবলী’তে দেখা গিয়েছিল প্রভাসকে। আর এবার দীর্ঘবিরতির পর সুজিত পরিচালিত ‘সাহো’ মধ্যদিয়ে পর্দা মাতাবেন দক্ষিনী এই সুপারস্টার। ছবিটিতে তার বিপরীতে প্রথমবারের মত দেখা যাবে বলিউড অভিনেত্রী শ্রদ্ধা কাপুরকে।

অপরদিকে ভারতের মঙ্গল গ্রহ অভিযানের অবিশ্বাস্য সত্য কাহিনীর আলোকে নির্মিত হচ্ছে অক্ষয় কুমারের অ্যাকশন-ড্রামা ‘মিশন মঙ্গল’। অক্ষয় কুমার প্রযোজিত এই  সিনেমার মূল চরিত্রে অক্ষয় কুমার ছাড়াও আরো অভিনয় করছেন বিদ্যা বালান, সোনাক্ষী সিনহা, তাপসী পান্নু ও শারমান জোশি।

এছাড়াও ভারতের দিল্লী পুলিশের এনকাউন্টারের একটি সত্য ঘটনা অবলম্বনে নির্মিত হচ্ছে বলিউড সিনেমা ‘বাটলা হাউজ’। ছবিটিতে একজন পুলিশ অফিসারের চরিত্রে দেখা মিলবে জন আব্রাহামের। ২০০৮ সালের সেই ঘটনাটিকে কেন্দ্র করে সারা ভারতজুড়ে সমালোচনা হয়েছিল।

এমনকি পুলিশের কার্যক্রমকে প্রশ্নবিদ্ধ করা হয়েছিল। নিখিল আদবানি পরিচালিত ছবিটিতে জন আব্রাহাম ছাড়াও আরো দেখা গেছে মৃণাল ঠাকুরকে। এবং একটি আইটেম সংয়ে কোমর দুলাতে দেখা যাবে নোরা ফাতেহিকে।

বিজ্ঞাপন