চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে মন্ত্রীর বৈঠকের পর সচিবের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিবের গলাধাক্কায় এক মুক্তিযোদ্ধার আত্মহত্যার ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্ত ও ওই সচিবকে বরখাস্তের দাবি জানিয়েছেন মুক্তিযোদ্ধারা। মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে শিগগিরই এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত জানানো হবে।

মুক্তিযোদ্ধা আইয়ূব খানকে সচিব এম এ হান্নান গলা ধাক্কা দেয়ায় ওই অপমান সইতে না পেরে তিনি আত্মহত্যা করেন বলে সুইসাইড নোটে উল্লেখ করে গেছেন মুক্তিযোদ্ধা।

বিজ্ঞাপন

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে মুক্তিযোদ্ধারা সচিবের শাস্তির দাবি জানান। তারা বলেন, তদন্তে দায়িত্বপ্রাপ্ত যুগ্মসচিব শেখ মিজানুর রহমান কিভাবে জুনিয়র হয়ে সিনিয়রের তদন্ত করবেন!

একজন মুক্তিযোদ্ধা বলেন, একজন সচিবের তদন্ত কখনো ডেপুটি সেক্রেটারি বা জয়েন্ট সেক্রেটারি করতে পারেন না। যেহেতু সচিব উচ্চ পদমর্যাদার তাই তাকে ‘অ্যাড্রেস টু স্যার’ বলতে হবে। নিচের পোস্টের লোক সচিবের তদন্ত করতে পারেন না।

সচিব এখনো চাকরিতে বহাল আছে উল্লেখ করে তারা তাকে সাসপেন্ড করারও দাবি জানান।

বিজ্ঞাপন

আরেক মুক্তিযোদ্ধা বলেন, ওই সচিব যে এমন আচরণ করতে পারেন, তার চাক্ষুস প্রমাণ হলাম আমি। এক মুক্তিযোদ্ধা তাকে বলেছিলেন, বস আমার এই গেজেটটার ব্যাপারে আপনি যদি ব্যবস্থা নেন তাহলে হয়ে যাবে। উনি বলেছিলেন, এখান থেকে বের হন। এখানে ঢোকার পর আমাকে ‘স্যার’ ছাড়া আর কিছু বলবেন না।

‘আমরা দেশটাকে স্বাধীন করেছিলাম কি এভাবে অপমানিত হওয়ার জন্য?,’ বলে প্রশ্ন রাখেন তিনি।

মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক জানান, এ ব্যাপারে সিদ্ধান্তের জন্য তিনি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করবেন।

তিনি বলেন, বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিটি গঠনের এখতিয়ার সরকারের, সাসপেন্ডও এই মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী করতে পারেন না। সেটা জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় করে।

‘আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আজ, না হয় কাল অবশ্যই দেখা করবো। এরপর উনি কী সিদ্ধান্ত দেন সেটা আপনাদের জানাবো,’ উল্লেখ করে মুক্তিযোদ্ধা আইয়ূব খানের পরিবারকে সব ধরণের সহায়তা করা হবে বলে জানান মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক।

Bellow Post-Green View