চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

প্রথম আরব লেখকের আন্তর্জাতিক বুকার জয়

এ বছরের ম্যান বুকার আন্তর্জাতিক পুরস্কার পেয়েছেন ওমানি লেখক জোখা আলহারতি। আরব অঞ্চল থেকে এই প্রথম কোনো ব্যক্তি এই আন্তর্জাতিক সম্মাননাটি পেলেন।

‘সেলেস্টিয়াল বডিজ’ (স্বর্গীয় স্বত্ত্বা) উপন্যাসের জন্য পুরস্কার পেয়েছেন আলহারতি। উপন্যাসটির বিষয়বস্তু তিন বোন ও তাদের পরিবারের জীবনকে ঘিরে, যারা ওমানের সামাজিক পরিবর্তনের সঙ্গে নিজেকে খাপ খাইয়ে নেয়ার চেষ্টা করছে।

বিজ্ঞাপন

বিচারকরা বইটিকে ‘সমৃদ্ধ কল্পনার, চিত্তাকর্ষক এবং কাব্যিক অন্তর্দৃষ্টিতে পরিপূর্ণ’ বলে ব্যাখ্যা করেছেন।

পুরস্কার হিসেবে ক্রেস্টের সঙ্গে ৫০ হাজার ব্রিটিশ পাউন্ড (৬৩ হাজার মার্কিন ডলার) পেয়েছেন জোখা আলহারতি। অর্থটি বইয়ের অনুবাদক আমেরিকান অ্যাকাডেমিক ম্যারিলিন বুথের সঙ্গে সমান ভাগ করে নেবেন তিনি। আন্তর্জাতিক ম্যান বুকারের এটাই নিয়ম।

‘সমৃদ্ধ আরব সংস্কৃতির একটি জানালা আজ এর মধ্য দিয়ে বিশ্বের জন্য খুলে গেল বলে আমি রোমাঞ্চিত,’ লন্ডনের রাউন্ডহাউজে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের বলেন এই লেখক।

বিজ্ঞাপন

‘আমার অনুপ্রেরণা ছিল ওমান। কিন্তু আমার মনে হয় আন্তর্জাতিক পাঠকরা উপন্যাসটিতে বর্ণিত স্বাধীনতা ও ভালোবাসার মতো মানবিক মূল্যবোধগুলোর সঙ্গে নিজেদের মেলাতে পারবেন।’

ম্যান বুকার-আরবীয় লেখক-ওমানি
অনুবাদকের সঙ্গে বিজয়ী ঔপন্যাসিক জোখা আলহারতি

সেলেস্টিয়াল বডিজ বইটির প্রেক্ষাপট ওমানের আল-আওয়াফি গ্রাম। বইটিতে গ্রামের অধিবাসী তিন বোনের গল্প বলা হয়েছে, যারা উপনিবেশিকতা পরবর্তী সময়ের প্রথাগত সমাজ থেকে ওমানের সাংস্কৃতিক বিবর্তনের মধ্য দিয়ে গেছে।

‘বইটিতে দাসত্ববাদের ছোঁয়া আছে। আমার মনে হয় এই বিষয়টি নিয়ে আলোচনার সেরা প্ল্যাটফর্ম হচ্ছে সাহিত্য,’ বলেন আলহারতি।

আলহারতি হলেন প্রথম ওমানি উপন্যাসিক যার লেখা ইংরেজিতে অনূদিত হলো।

Bellow Post-Green View