চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

প্রথমবারের মতো বৈঠকে পুতিন-কিম

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে প্রথমবারের মতো বৈঠকে বসতে যাচ্ছেন উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উন।

বৃহস্পতিবার রাশিয়ার পূর্বাঞ্চলীয় শহর ভ্লাদিভস্তকে শীর্ষ দুই নেতার বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। বৈঠকে কোরিয়া উপ-দ্বীপের ‘পারমাণবিক সমস্যা’ নিয়ে আলোচনা হবে বলে জানিয়েছে ক্রেমলিন।

বিজ্ঞাপন

এই ইস্যুর রাজনৈতিক ও কূটনৈতিক সমাধানের বিষয়টিই এতে গুরুত্ব পাবে। আর তাই কিম জং উনের জন্য এ সফর খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তবে কিম চাইলেও রাশিয়া এখনই পিয়ংইয়ংয়ের ওপর থেকে আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার প্রস্তাবে সমর্থন দেবে না বলেই অনুমান বিশ্লেষকদের।

এমন একটি সময় পুতিনের সাথে এই বৈঠক করতে যাচ্ছে কিম, যখন পরমাণু বিষয় নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সাথে আলোচনার অচলাবস্থা তৈরি হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বিশ্লেষকদের বরাত দিয়ে বিবিসি বলছে, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে সম্প্রতি অনুষ্ঠিত দ্বিতীয়বারের মতো বৈঠক ব্যর্থ হওয়ায় ক্ষমতাধর কোনো দেশের সমর্থন পাওয়ার লক্ষ্যেই কিমের এই রাশিয়া যাত্রা।

রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিনের পররাষ্ট্রনীতি বিষয়ক উপদেষ্টা জুরি উশাকোভ বলেন, সম্প্রতি কয়েক মাস ধরে কোরীয় উপদ্বীপের পরিস্থিতি ‘কিছুটা স্থিতিশীল’। এই পরিস্থিতি দীর্ঘস্থায়ী করতে রাশিয়া যেকোনোভাবে সাহায্য করতে ইচ্ছুক।

যদিও উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম বৈঠকের অবস্থান ও সময় নিয়ে কিছু জানায়নি। কিন্তু ভ্লাদিভস্তক শহরের রুস্কি দ্বীপে রাশিয়া এবং উত্তর কোরিয়া উভয় দেশের পতাকা উড়তে দেখা গেছে। সেখানেই কিম-পুতিন বৈঠকে বসবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এর আগেও উত্তর কোরিয়ায় পরমাণু কর্মসূচির অবসান ঘটাতে রাশিয়া আলোচনা করেছে। ২০১১ সালে এমন একটি শীর্ষ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। তৎকালীন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট দিমিত্রি মেদভেদেভের সঙ্গে বৈঠকটি করেছিলেন কিম জং উনের বাবা কিম জং ইল।

Bellow Post-Green View