চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

প্রথমদিকে ইংরেজি সংলাপে সমস্যা হয়েছে: ‘নো ল্যান্ডস ম্যান’ প্রসঙ্গে নওয়াজ

মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর ‘নো ল্যান্ডস ম্যান’ ছবিতে অভিনয় করেছেন বলিউড অভিনেতা নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকী। ছবিটি দক্ষিণ কোরিয়ার বুসান আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে মনোনয়ন পেয়েছে। ফারুকীর সঙ্গে নওয়াজের পরিচয়টাও হয়েছিল একটি আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে।

তাদের বন্ধুত্বের শুরুটা হয়েছিল সিনেমার প্রতি ভালোবাসা এবং একে অপরের কাজের প্রশংসার মাধ্যমে। ‘নো ল্যান্ডস ম্যান’ ছবির সুবাদে একসঙ্গে কাজ করার সুযোগটাও মিলেছে তাদের। ছবি প্রসঙ্গে নওয়াজউদ্দিন বলেন, ‘তার সিনেমাগুলো দর্শক ধরে রাখার মতো এবং এটা আর্ট ফিল্ম, কমার্শিয়াল ফিল্ম নাকি ফেস্টিভ্যাল ফিল্ম তা নির্দিষ্ট করে বলা মুশকিল।’

নিউ ইয়র্ক এবং সিডনিতে ছবির শুটিং হয়েছে। দক্ষিণ এশিয়ার একজন পুরুষের পরিচয় সংকট নিয়ে তৈরি হয়েছে ছবির কাহিনী। বুসান আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে ‘কিম জিসেওক’ পুরস্কারের জন্য মনোনীত সাতটি ছবির একটি এটি।

ছবিতে নিজের চরিত্র সম্পর্কে নওয়াজ বলেন, ‘আমার চরিত্রটি নিজেকে প্রশ্ন করতে থাকে সে কোথা থেকে এসেছে। একটি সাধারণ প্রশ্ন যা যে কারো মনেই উঠতে পারে, ছবির বিষয়বস্তুর সাথে বর্তমান সময়ের সম্পৃক্ততা আছে। ছবির জন্য কোনো প্রস্তুতি নেইনি, যা করতে হয়েছে তা হলো চরিত্রের মানুষটিকে অনুভব করা।’

বিজ্ঞাপন

নওয়াজ জানান, প্রথম কয়েকদিন একটু ঝামেলা পোহাতে হয়েছে তাকে। তিনি বলেন, ‘প্রথমদিকে ইংরেজি সংলাপে সমস্যা হয়েছে। তবে ফারুকী আমাকে সাহায্য করেছেন পুরো সময়টা জুড়ে। চরিত্রের ছন্দ বুঝে যাওয়ার পরে আর সমস্যা হয়নি।

নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকী আরও বলেন, ‘কোনো গল্প যদি সাধারণ হয়, তাহলে সেখানে চমক ও মোড় থাকতে হয়। জটিল গল্পকে সহজ করে বলা উচিত। একারণেই আমাদের মনে হয়েছে ছবির বিষয়বস্তু বলতে হবে হাস্যরসের মাধ্যমে যেন দর্শক উপভোগ করতে পারে এবং স্বাদ গ্রহণ করতে পারে।’

৬ অক্টোবর থেকে ১৫ অক্টোবর পর্যন্ত অনুষ্ঠেয় বুসান উৎসবের ২৬তম আসরে ‘কিম জিসোক’ পুরস্কারের জন্য ‘লো ল্যান্ডস ম্যান’সহ দক্ষিণ এশিয়ার মোট সাতটি সিনেমা মনোনীত করা হয়েছে। তার মাঝে আছে অপর্ণা সেনের ‘দ্য রেপিস্ট’।

নওয়াজ জানান, এই ছবির জন্যও প্রস্তাব পেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু সময় না মেলায় কাজের সুযোগ মেলেনি। -মিড ডে

বিজ্ঞাপন