চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

পুলিশের তাৎক্ষণিক ব্যবস্থায় পরিবর্তন

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় পহেলা বৈশাখে যৌন হয়রানির ঘটনায় দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগে শাহবাগ থানার এসআই মোহাম্মদ আশরাফুল আলমকে ক্লোজড করে পরে আবার সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করেছে ডিএমপি। তদন্ত চলার সময় শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া যায় না বলে এ পরিবর্তন বলে কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। তবে আনুষ্ঠানিকভাবে পুলিশ বলেছে, কাউকে ক্লোজড করা হয়নি।

Advertisement

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে কয়েকজনকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদও করেছে
পুলিশের ৩ সদস্যের তদন্ত কমিটি।

জড়িতদের কেউ ঢাকা
বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র নয় বলে দাবি করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর আফজাল হোসেন।

ঘটনার প্রতিবাদে এবং জড়িতদের
গ্রেফতারের দাবিতে প্রতিবাদ কর্মসূচি চলছে। শাহবাগ থানা ঘেরাও করে ছাত্র ইউনিয়নসহ কয়েকটি
বাম ছাত্র সংগঠন বিক্ষোভ করেছে। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে দোষীদের গ্রেফতার দাবি করেছে চারুকলার
শিক্ষার্থীরা।

বর্ষবরণ উপলক্ষে ওই এলাকার সার্বিক নিরাপত্তায় সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ও টিএসসিতে পুলিশের বিপুল উপস্থিতি ছিলো। সেখানে তিন ভাগে বিভক্ত হয়ে দায়িত্ব পালন করছিলো পুলিশ। ঘটনাস্থল থেকে ২৫ গজ দূরে দায়িত্ব পালন করছিলেন শাহবাগ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সাইদুল হক ভুঁইয়ার নেতৃত্বে একদল পুলিশ। ওই এলাকার সার্বিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা মনিটর করছিলেন পুলিশের একজন অতিরিক্ত কমিশনার ও একজন সহকারি কমিশনার। সোহরাওয়ার্দী ও টিএসসি এলাকায় ১৯টি সিসি ক্যামেরা ছিল। উদ্যানের ভেতরে পুলিশ কন্ট্রোল রুমে ছিল মনিটর। কিন্তু পুলিশ অ্যাকশনে গিয়েছিলো প্রায় এক ঘণ্টা পর।