চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

পিরোজপুর শহর অচল করে দেয়ার হুমকি আউয়াল সমর্থকদের

দুর্নীতি এবং সরকারী জমি দখলের অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) এর দায়ের করা মামলা প্রত্যাহার করা না হলে পিরোজপুর শহর অচল করে দেওয়ার হুমকি দিয়েছে পিরোজপুরের সাবেক এমপি ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি একেএমএ আউয়াল এর সমর্থকরা।

আউয়ালের স্ত্রী জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি লায়লা পারভীনের জামিন নাটক এবং বিচারক প্রত্যাহারের ঘটনার পর বৃহস্পতিবার শহরে একেএমএ আউয়ালের পক্ষে শো-ডাউন করেছে সমর্থকরা।

তারা অবিলম্বে একেএমএ আউয়াল এবং তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানায়।

বেলা ১১টায় শহরের গোপাল কৃষ্ণ টাউন ক্লাব মাঠ থেকে বের হয়ে একটি বিক্ষোভ মিছিল সিও অফিস মোড়ে গিয়ে সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়। এতে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা অংশ নেয়।

এসময় বক্তারা একেএমএ আউয়াল এবং তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলা মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক দাবি করে বলেন, অবিলম্বে সকল মামলা প্রত্যাহার করে নিতে হবে। অন্যথায় পিরোজপুর শহরসহ পুরো জেলা অচল করে দেয়া হবে। এসময় তারা উপজেলা, ইউনিয়ন, ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে আন্দোলন করার ঘোষণা দেয়।

বিজ্ঞাপন

বক্তারা বলেন, পিরোজপুরের রাজনীতিতে আউয়াল পরিবার, খলিফা পরিবার ছাড়া কোনো বিকল্প নেই। তাদেরকে কোনোভাবে দাবিয়ে রাখা যাবে না। তারা গত ৩৫ বছর ধরে পিরোজপুরের মাটিতে রাজনীতি করে আসছে। তাদের বিরুদ্ধে কেউ কোনো ষড়যন্ত্র করে পার পাবে না। সকল ষড়যন্ত্রকারীকে কঠোরভাবে প্রতিহত করা হবে।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক শেখ ফিরোজ আহম্মেদ, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর হোসেন নান্না, সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম সিকদার মন্টু, এডভোকেট জাকির হোসেন, সদর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহবায়ক সুমন সিকদার, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম টিটু, সাবেক সভাপতি ইরতিজা হাসান রাজু, ফয়সাল মাহাবুব শুভ প্রমুখ।

দুর্নীতির অভিযোগে দুদকের দায়ের করা তিনটি মামলায় মঙ্গলবার পিরোজপুর-১ আসনের সাবেক এমপি ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি একেএমএ আউয়াল এবং তার স্ত্রী লায়লা পারভীনকে জামিন নামঞ্জুর করে জেলা হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন পিরোজপুর জেলা ও দায়রা জজ আব্দুল মান্নান। এর কয়েক ঘণ্টার মধ্যে আইন মন্ত্রণালয় থেকে পিরোজপুর জেলা ও দায়রা জজ আব্দুল মান্নানকে স্ট্যান্ড রিলিজ করা হয়। পরে দায়িত্বপ্রাপ্ত ভারপ্রাপ্ত জেলা ও দায়রা জজ নাহিদ নাসরিনের আদালত বিকেলে একেএমএ আউয়াল ও তার স্ত্রী লায়লা পারভীনের জামিন মঞ্জুর করেন।

শেয়ার করুন: