চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

পিছিয়ে গেল খালেদা জিয়ার আপিল শুনানি

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় সাজার রায়ের বিরুদ্ধে বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার করা আপিলের শুনানি পিছিয়ে আগামি রোববার দুপুর ২ টায় সময় নির্ধারণ করেছেন হাইকোর্ট।

আপিল শুনানি মুলতবি চেয়ে খালেদার আইনজীবীর করা আবেদন নিষ্পত্তি করে বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ মঙ্গলবার এই আদেশ দেন।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। দুর্নীতি দমন কমিশনের পক্ষে আইনজীবী খুরশীদ আলম খান আর খালেদা জিয়ার পক্ষে এ জে মোহাম্মদ আলী।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় সাজার রায়ের বিরুদ্ধে বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার করা আপিল শুনানির জন্য ৩ জুলাই দিন ধার্য করে গত ২৭ জুন আদেশ দিয়েছিলেন হাইকোর্ট।

পরবর্তীকালে খালেদার সাজা বৃদ্ধি চেয়ে দুদকের করা রিভিশন আবেদন এবং এই মামলার ১০ বছরের দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি সালিমমুল হক কামাল ও শরফুদ্দিন আহমেদের আপিল খালেদার আপিলের সাথেই হাইকোর্টের এই বেঞ্চে শুনানির জন্য নির্ধারণ করা হয়।

এর আগে গত ৮ ফেব্রুয়ারি ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫ সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে এই মামলায় পাঁচ বছরের সাজা দেন।

বিজ্ঞাপন

সেই সঙ্গে তার ছেলে তারেক রহমানসহ অপর পাঁচ আসামীর প্রত্যেককে ১০ বছরের জেল ও জরিমানা করা হয়।

বিচারিক আদালতের এই রায়ের বিরুদ্ধে পরে হাইকোর্টে আপিল এবং জামিন আবেদন করে খালেদা জিয়া। এছাড়া আপিল করে সালিমমুল হক কামাল ও শরফুদ্দিন আহমেদ। আর খালেদার সাজা বৃদ্ধি চেয়ে আবেদন করে দুদক।

এরপর গত ১২ মার্চ বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমের নেতৃত্বাধীন হাইকোর্ট বেঞ্চ খালেদা জিয়াকে চার মাসের জামিন দেন। পরে সে জামিন বহাল রাখেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।

সেই সাথে এই মামলার রায়ের বিরুদ্ধে খালেদা জিয়ার করা আপিল ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে নিষ্পত্তির জন্য হাইকোর্টের এই বেঞ্চকে নির্দেশ দেন আপিল বিভাগ।

তবে ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে খালেদা জিয়ার আপিল নিষ্পত্তির আদেশের বিরুদ্ধে রিভিউ করেন খালেদা জিয়া।

আর এই রিভিউ এর সুত্র ধরে হাইকোর্টে নির্ধারিত আপিল শুনানি মুলতবি চেয়ে গতকাল আবেদন করে খালেদার আইনজীবীরা। সে আবেদনে বলা হয়, সাজার রায়ের বিরুদ্ধে খালেদার আপিলের একটি অংশ নিয়ে করা রিভিউ আপিল বিভাগে শুনানির জন্য রয়েছে। তাই ওই রিভিউর সিদ্ধান্ত না আসা পর্যন্ত হাইকোর্টে আপিল শুনানি মুলতবি রাখা হোক।

মঙ্গলবার এই মুলতবি আবেদনের শুনিনি নিয়ে হাইকোর্ট খালেদার আপিল শুনানি পিছিয়ে আগামি রোববার দুপুর ২ টায় সময় নির্ধারণ করে আদেশ দেন।

বিজ্ঞাপন