চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

পিএসজি চাইলেই কেড়ে নিতে পারে মেসিকে

আর্থিকভাবে খুবই নাজুক অবস্থায় বার্সেলোনা। পরিস্থিতি এতটাই খারাপ যে, দেউলিয়া হওয়া ঠেকাতে খেলোয়াড়দের বেতন কাটতে বাধ্য হয়েছে ক্লাবটি। আগামী জানুয়ারিতে খেলোয়াড়দের কীভাবে বেতন দেয়া হবে তা নিয়ে ব্যাপক দুশ্চিন্তায় ভারপ্রাপ্ত সভাপতি কার্লেস টেসকুয়েটস।

বার্সার এমন পরিস্থিতিতে বড় দুশ্চিন্তার নাম হয়ে দাঁড়িয়েছেন লিওনেল মেসি। আর্জেন্টাইন অধিনায়কের এখন যা বেতন, তাকে ছেড়ে দিতে পারলেই খুশি হয় ক্লাবের অনেকে। চলতি মৌসুম শেষে মেসির থেকে যাওয়া উচিৎ নাকি ১৬ বছরের সম্পর্কে ছেদ টেনে অন্য ক্লাবের জার্সি গায়ে চাপানো উচিৎ, তা নিয়ে আছে নানা মত। বিশেষ করে আগামী ক্লাব প্রেসিডেন্ট প্রার্থীরা প্রসঙ্গটি তুলে গরম করে রেখেছেন মাঠ।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন অগাস্টি বেনেডিটো। মার্কা রেডিওকে সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হতে পারলে তারও চেষ্টা থাকবে মেসিকে ধরে রাখার।

‘আমি তাকে বলবো সে যেন বার্সাতেই খেলে যায়। সে বিশ্বের সেরা ফুটবলার। আমি শুনেছি সে বার্সা ছাড়তে চায়। বিষয়টা এমন না যে বিছানার উল্টো পাশে শুয়ে ধুম করে কোনো একটা সিদ্ধান্ত সে দিয়ে দিলো।’

বিজ্ঞাপন

মেসিকে ধরে রাখতে হলে ক্লাবের যে অর্থনৈতিক অবস্থা তা আরও নাজুক হয়ে পড়তে পারে, সেটাও মেনে নিচ্ছেন বেনেডিটো- ‘প্রথমে মেসিকে সিদ্ধান্ত পাল্টাতে হবে। যদি ইউরোপে অন্য দলগুলোর সঙ্গে আমাদের লড়তে হয় তাহলে তাদের চোখ থাকবে মেসির দিকে। আর যদি অর্থনৈতিক অবস্থা খারাপ হয়, আমার মনে হয় না আমরা তাকে আটকে রাখতে পারবো।’

গত চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বায়ার্ন মিউনিখের কাছে ৮-২ গোলে বিধ্বস্ত হবার পর বার্সা ছাড়ার ইচ্ছা জানান দেন মেসি। যদিও পরে আরেকটা মৌসুম খেলে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন আর্জেন্টাইন মহাতারকা। তার পেছনে এখনও জোঁকের মতো লেগে আছে পিএসজি-ম্যানচেস্টার সিটির মতো ক্লাবগুলো।

দৌড়ে এগিয়ে আছে পিএসজিও। তাদের ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড ও সাবেক বার্সা তারকা নেইমার জানিয়েছেন, মেসির সঙ্গে আবারও একসঙ্গে খেলতে চান। নেইমারের সেই কথাকে অশনি সংকেত বলে ধরে নিয়েছেন বেনেডিটো।

‘যেদিন আমি নেইমারকে বলতে শুনলাম, সে মেসিকে চায়, তখনই বললাম, এ বলে কী! এদের ব্যাপারে সাবধান। কারণ পিএসজি কাতারের সম্পত্তি যারা বিশ্বকাপের আয়োজক, একটা ক্লাবের মাধ্যমে একনায়ক আচরণ করে বেড়াচ্ছে। যদি পিএসজি সত্যিই মেসিকে চায় তাহলে বলবো, আর্থিকভাবে তাকে আটকানোর সামর্থ্য আমাদের নেই।’

বিজ্ঞাপন