চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

পাহাড়সম লক্ষ্যের চাপায় হারের ক্ষণ গুনছে কিউইরা

মুম্বাই টেস্টের পরিণতি তৃতীয় দিন শেষে একরকম অনুমেয়ই হয়ে গেছে। ভারতের প্রথম ইনিংসে করা ৩২৫ রানের জবাবে নিউজিল্যান্ড মাত্র ৬২ রানে গুটিয়ে যাওয়ার পর অবিশ্বাস্য কোনো চিত্রনাট্যের দেখা মেলেনি। ভারতের দ্বিতীয় ইনিংসের পর পাহাড়সম লক্ষ্যের চাপায় পড়েছে কিউইরা। জয়-পরাজয়ের মাঝে এখন মাত্র ৫ উইকেটের ব্যবধান।

রোববার ৭ উইকেটে ২৭৫ রান তুলে বিরাট কোহলি দ্বিতীয় ইনিংস ঘোষণা করেছেন। সফরকারীদের সামনে তাতে ৫৪০ রানের বিশাল লক্ষ্য দাঁড়ায়। যার পেছনে ছুটতে যেয়ে ইতিমধ্যে ৫ উইকেট খুইয়ে বসেছে নিউজিল্যান্ড।

প্রথম ইনিংসের মতো অবশ্য কিউইদের ব্যাটিং তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়েনি। তৃতীয় দিনশেষে দ্বিতীয় ইনিংসে তাদের সংগ্রহ ৫ উইকেটে ১৪০ রান। অসম্ভব এক লক্ষ্যের মুখে জয় তুলতে হলে তাদের বাকি দুদিনে করতে হবে আরও ৪০০ রান। হাতে ৫ উইকেট। ভারত আবার এই ৫ উইকেট তুলে নিলেই করবে জয়ের উল্লাস।

বিনা উইকেটে ৬৯ রানে তৃতীয় দিন শুরু করা ভারত ওপেনিং জুটিকে ১০৭ পর্যন্ত টেনে নেয়। আগের ইনিংসে দেড়শ করা মায়াঙ্ক আগারওয়াল এবার ১০৮ বল টিকেছেন। ৯ চার ও এক ছক্কার মারে ৬২ রান করে যান। আজাজ প্যাটেলের বলে উইল ইয়াংয়ের হাতে ধরা পড়ন। তাতে জুটি ভাঙে।

মায়াঙ্কের ফেরার পর বেশিক্ষণ থাকতে পারেননি চেতেশ্বর পূজারাও। রস টেলরের তালুবন্দি হওয়ার আগে করে যান ৪৭ রান। পূজারার উইকেট নিয়ে ভারতের প্রথম ১২ ব্যাটারের উইকেট তুলে নিজেকে লাইমলাইটেই রাখেন প্যাটেল।

বিজ্ঞাপন

চোটে পড়ায় ওপেনিংয়ের বদলে তিনে নামা শুভমন গিলও করে যান ৪৭ রান। রাচিন রাভিন্দ্রের বলে টম ল্যাথামের হাতে ধরা পড়েন। কোহলির সঙ্গে ৮২ রানের জুটি দিয়ে যান।

দলীয় ২১১ রানের মাথায় প্যাটেলের বলে স্ট্যাম্পিংয়ের ফাঁদে পড়ে শ্রেয়াস আয়ার বিদায় নেন ১৪ করে। খানিক পর রাভিন্দ্রের বলে বোল্ড হয়ে ৩৬ করা কোহলি।

উইকেটরক্ষক-ব্যাটার ঋদ্ধিমান সাহা ১৩ রান করে ফেরার পর ঝড় তোলেন অক্ষর প্যাটেল। ২৬ বলে ৩ চার ও ৪ ছক্কার মারে ৪১ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে দেন অক্ষর। জয়ন্ত যাদব ৬ রানে আউট হওয়া মাত্র ইনিংস ঘোষণা করে ভারত।

প্রথম ইনিংসে ১০ উইকেট নেয়া আজাজ প্যাটেল দ্বিতীয় ইনিংসে ৪ উইকেট ঝুলিতে পুরেছেন। এই টেস্টে মোট ১৪ উইকেট তার নামের পাশে।

নিউজিল্যান্ডের দ্বিতীয় ইনিংসে সর্বোচ্চ ৬০ রান এসেছে ড্যারিল মিচেলের থেকে। হেনরি নিকোলস অপরাজিত আছেন ৩৬ রানে, সঙ্গী উইল ইয়াং ২০ রানে। দুজনের কাঁধে নতুন দিনে ম্যাচের আয়ু লম্বা করার দায়িত্ব।

অশ্বিন ৩টি ও অক্ষর একটি করে উইকেট নিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন