চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

পাঠ্যপুস্তকে ‘সংবাদ সজ্ঞানতা ও সংবাদবোধ’ অধ্যায় যোগ করার সুপারিশ

সংবাদমাধ্যমকে নাগরিকের জন্য ভীতি, উস্কানি কিংবা চরিত্রহননের মাধ্যম না বানিয়ে জনমানুষের কন্ঠস্বর হিসেবে প্রতিষ্ঠার আহ্বান জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। তিনি বলেন: গণতন্ত্রকে শক্তিশালী করতে প্রধানমন্ত্রী যে প্রতিষ্ঠানগুলো গড়ে তুলছেন সেখানে গণমাধ্যমকেও তার দায়িত্ব পালন করতে হবে।

বৃহস্পতিবার প্রেস ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে বেসরকারি সংস্থা এমআরডিআই আয়োজিত সেমিনারে তিনি এসব কথা বলেন। সংবাদমাধ্যমের গুরুত্ব তুলে ধরে তথ্যমন্ত্রী বলেন, সংবাদমাধ্যম ও সংবাদকর্মীর অধিকার সংবিধান স্বীকৃত।

বিজ্ঞাপন

সেমিনারে ‘সংবাদবোধ ও পাঠকের ধারণা’ বিষয়ক মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন এমআরডিআই এর নির্বাহী পরিচালক হাসিবুর রহমান। এসময় গবেষণার ফল জানিয়ে বলা হয়, সংবাদ নিয়ে পাঠক-দর্শকের প্রত্যাশা এখনো অনেকটাই অপূর্ণ।

আলোচনায় অংশ নিয়ে গণমাধ্যমকর্মীরা নিজেদের নানা ব্যর্থতার কথা তুলে ধরার পাশাপাশি বলেন, গণমাধ্যমই শেষ পর্যন্ত মানুষের বড় আশ্রয়। আর বিশেষজ্ঞরা বলেন, গণমাধ্যমকে সেই দায়িত্ব পালন করে যেতে হবে।

বিজ্ঞাপন

বক্তারা বলেন, অনলাইন এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম যখন আরো শক্তিশালী হচ্ছে তখন কোনটা সংবাদ আর কোনটা ফেইক নিউজ সে সম্পর্কে ছোটবেলা থেকেই আগামী প্রজন্মকে সচেতন করে তুলতে হবে।

এজন্য পাঠ্যপুস্তকে সংবাদ সজ্ঞানতা এবং সংবাদবোধ নিয়ে ধারণামূলক অধ্যায় যোগ করার সুপারিশ করেন তারা।

বিস্তারিত দেখুন মাহমুদ রাসেলের ভিডিও রিপোর্টে: