চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

পাকিস্তানে চীনা রাষ্ট্রদূতকে লক্ষ্য করে ভয়াবহ বোমা হামলা

নিহত ৪, আহত অন্তত ১২

পাকিস্তানের কোয়েটা শহরে একটি বিলাসবহুল হোটেলে বোমা হামলায় অন্তত চারজনের মৃত্যু হয়েছে। এতে আহত হয়েছে আরো ১২ জন।

ধারণা করা হচ্ছে, ওই হোটেলে অবস্থানরত পাকিস্তানে নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদূতই ছিলেন হামলার প্রধান লক্ষ্য। ‘সেরেনা হোটেলে’ কার পার্কিংয়ে এই হামলা চালানো হয় বলে জানিয়েছেন বিবিসি।

চীনা রাষ্ট্রদূত আফগান সীমান্তের পাশে বালোচিস্তান প্রদেশের কোয়েটাতেই অবস্থান করছিলেন। তবে হামলার সময়ে তিনি ঘটনাস্থলে ছিলেন না।

পাকিস্তানি তালেবানরা এই হামলার দায় স্বীকার করলেও এ বিষয়ে কোনো বিস্তারিত তথ্য জানায়নি জঙ্গিগোষ্ঠীটি।

সম্প্রতি এই জঙ্গিগোষ্ঠী এবং অন্যান্য সন্ত্রাসী দলগুলো আফগানিস্তান সীমান্তের কাছে উপজাতি অঞ্চলে বেশ কিছু আক্রমণ চালিয়েছে।

‘সেরেনা হোটেল’ কোয়েটার একটি বহুল পরিচিত হোটেল। সরকারি কর্মকর্তা ও পাকিস্তান ভ্রমণে আসা ব্যক্তিরা সেখানে অবস্থান করেন।

দেশটির কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ রাশিদ আহমদ পাকিস্তানি গণমাধ্যম এআরওয়াই নিউজ টিভিকে বলেন, ‘বিস্ফোরকে পরিপূর্ণ একটি কার সেখানে বিস্ফোরিত হয়। এটা একটি সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড।

তিনি আরও জানান, চীনা রাষ্ট্রদূত নঙ রং ওই সময় একটি অনুষ্ঠানে ছিলেন তাই তিনি হোটেলে ছিলেন না।

চীনা রাষ্ট্রদূত নঙ রং মানসিকভাবে ভালো আছেন বলে জানিয়েছেন বালোচিস্তানের প্রাদেশিক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জিয়াউল্লাহ লানগো। তার কোয়েটা সফর বৃহস্পতিবার শেষ হবে।

পাকিস্তানের সবচেয়ে দরিদ্র প্রদেশ বালোচিস্তানে ইসলামিক চরমপন্থী ও বিচ্ছিন্নতাবাদীসহ বেশ কিছু সন্ত্রাসী দলের বসবাস।

বিচ্ছিন্নতাবাদী বালুচরা পাকিস্তান থেকে এই অঞ্চলের স্বাধীনতা চায়। তারা এই অঞ্চলে চীনের বড় বড় অবকাঠামোগত প্রকল্পের বিরোধী।

বালোচিস্তানের গ্যাস ও খনিজ সম্পদ নষ্টের জন্য সরকার ও চীনকে দায়ী করে তারা। স্থানীয় জনগণের সুবিধা ও উন্নয়নে ৫০ বছরেরও বেশি সময় ধরে আন্দোলন করে আসছে বালুচরা ।

বিজ্ঞাপন