চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

পাইনউড স্টুডিওতে ঢাবি’র ‘ক্যাম্পাস ক্লাইম্যাক্স’

বিশ্ববিদ্যালয় জীবন নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা নির্মাণ করেছেন পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘ক্যাম্পাস ক্লাইম্যাক্স’। ছবিটি নির্বাচিত হয়েছে ইংল্যান্ডের পাইনউড স্টুডিও’র ফার্স্ট টাইম ফিল্মমেকার সেশনে।

ইংল্যান্ডের বিখ্যাত পাইনউড স্টুডিও’র অধীনে প্রতিবছর আয়োজন করা হয় লিফট অফ গ্লোবাল নেটওয়ার্ক ফার্স্ট টাইম ফিল্মমেকার সেশন। এই বছর এই প্রতিযোগিতায় নির্বাচিত হয়েছে বাংলাদেশি চলচ্চিত্র ‘ক্যাম্পাস ক্লাইম্যাক্স’।

নির্বাচিত চলচ্চিত্র গুলোকে বিশ্ব দর্শকের কাছে পৌঁছে দেওয়াই এই প্লাটফর্ম এর মূল উদ্দেশ্য। এছাড়া সেশনের দর্শক ও বিচারকদের রায়ের সেরা ছবিগুলোর নির্মাতারা তাদের পরবর্তী ছবি নির্মাণের জন্য পাইনউড স্টুডিওর সহযোগিতা পাবে।

বিজ্ঞাপন

‘ক্যাম্পাস ক্লাইম্যাক্স’ চলচ্চিত্রটির গল্প, চিত্রনাট্য ও পরিচালনা করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী জিৎ দে। এটি তার প্রথম ছবি। চলচ্চিত্রটির গল্প আবর্তিত হয়েছে ক্যাম্পাস জীবনকে ঘিরে।

এই স্বীকৃতি প্রসঙ্গে পরিচালক জিৎ বলেন, ‘ছাত্র অবস্থায় একটি ফিল্ম বানিয়েছি। তাই এটি নিয়ে তেমন কোন উচ্চাকাঙ্ক্ষা আমার নেই। তবে এধরণের আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পরবর্তীতে আর ভাল কাজ করার জন্য একটি বড় প্রেরণা।’

চলচ্চিত্রটির চিত্রগ্রহণে ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আকাশ হক। চলচ্চিত্রটিতে অভিনয় করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের শিক্ষার্থীর খাইরুল বাসার, আফসানা আশা, মৃত্যুঞ্জয় মজুমদার, মীর লোকমান প্রমুখ।

বিজ্ঞাপন